২২ Jul ২০২৪, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন, ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি, সোমবার, ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
জীবিতকে মৃত দেখিয়ে ইউপি সদস্যের শাশুড়ির নামে যাচ্ছে বিধবা ভাতা

জীবিতকে মৃত দেখিয়ে ইউপি সদস্যের শাশুড়ির নামে যাচ্ছে বিধবা ভাতা

আজকের ক্রাইম ডেক্স : টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় জীবিত জয়তন বেগম নামের এক বৃদ্ধাকে মৃত দেখিয়ে তার বিধবা ভাতার কার্ড ইউপি সদস্যের শাশুড়ির নামে করিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বাংড়া ইউনিয়নের আউলটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী জয়তন বেগম।

জানা যায়, উপজেলার বাংড়া ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান একই ইউনিয়নের বাসিন্দা জীবিত জয়তন বেগমকে মৃত দেখিয়ে তার বিধবা ভাতার কার্ড তিনি তার শাশুড়ি মমতা বেগমের নামের করিয়ে নিয়েছেন। পরে জয়তন বেগম তার বই নিয়ে উপজেলা সমাজসেবা অফিসে গেলে জানতে পারেন, এক বছর আগে তিনি মারা গেছেন। তার স্থলে এই কার্ড আউলটিয়া গ্রামের মমতা বেগমের নামে ইস্যু করা হয়েছে।

বিধবা জয়তন বেগমের নাতনি কনিকা আক্তার জানান, তিন মাস অন্তর অন্তর নিয়মিত ভাতা পান। তবে এক বছর ধরে তার মোবাইলে ভাতার মেসেজ আসা বন্ধ হয়ে যায়। কেন এমনটি হয়েছে তা তিনি জানতে পারেননি।

বিষয়টি নিয়ে বাংড়া ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি বলেন, ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান মজনুকে শোকজ করা হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান মজনু দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমার ভুল হয়েছে। ওই মহিলাকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান বলেন, ‘বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যেন আগের বৃদ্ধা তার প্রাপ্য দ্রুততর সময়ে ফেরত পান।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019