২২ Jul ২০২৪, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন, ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি, সোমবার, ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
বরিশালে গণসংযোগে নেমে টাকা বিতরণের অভিযোগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিরুদ্ধে

বরিশালে গণসংযোগে নেমে টাকা বিতরণের অভিযোগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিরুদ্ধে

আজকের ক্রাইম ডেক্স: বরিশালের মুলাদিতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দোয়াত কলম প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. জহির উদ্দিন খসরুর বিরুদ্ধে গণসংযোগের সময় ভোটারদের টাকা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এরই মধ্যে টাকা দেওয়ার একটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে পুরো উপজেলাজুড়ে।

এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো তারিকুল হাসান খান মিঠু। তারিকুল হাসান খান মিঠু তার অভিযোগ পত্রে লেখেন, গত ৬ মে উপজেলার সাফিপুর ইউনিয়নে গণসংযোগ করার সময় চরপদ্ধা গ্রামের নলী বাড়িতে ভোটারদের প্রভাবিত করার উদ্দেশ্যে জহির উদ্দিন খসরু টাকা বিতরণ করেন।

এর আগে ৫ মে কাজিরচর ইউনিয়নের রাগুয়া কাজিরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে জনসভা করেন তিনি। এসব চেয়ারম্যান প্রার্থী জহির উদ্দিন খসরু নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে পোস্ট করেন। আবেদনপত্রে আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে খসরুর প্রার্থিতা বাতিলের দাবি করেন তারিকুল হাসান খান মিঠু।

তবে অভিযোগ মানতে নারাজ জহির উদ্দিন খসরু। তিনি বলেন, সাফিপুর ইউনিয়নে গণসংযোগ করার সময় এলাকাবাসী জানান একজনের দোকানঘর পুড়ে গেছে। তখন যে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাকে আমি দুই হাজার টাকা দেই। মানবসেবা বা কাউকে দান করা কি অপরাধ? প্রার্থীদের কাছে তো মানুষের আশা থাকে। সেখান থেকে আমার সাধ্য অনুযায়ী সাহায্য করেছি।

এছাড়া জনসভার যে অভিযোগ করা হয়েছে সেটা তো উঠান বৈঠক ছিল। নির্বাচন কমিশন যদি আমাকে ডাকে প্রমাণসহ জবাব দেব। এ বিষয়ে জানতে চাইলে মুলাদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নিজাম উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, অভিযোগপত্র পাওয়া মাত্রই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে আমরা ব্যবস্থা নেব।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019