২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:১৯ অপরাহ্ন, ১৮ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি, বৃহস্পতিবার, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
হিজাব না পরায় ৯ ছাত্রীর চুল কেটে দিলেন শিক্ষিকা বাউফলে অনুমোদন ছাড়াই ক্লিনিক চালানো সেই ভুয়া ডাক্তার কারাগারে পুলিশ সদস্যের হাতে মাদক দেখলেই চাকরি যাবে: আইজিপি বাড়িতে বাবার লাশ এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে মেয়ে তেঁতুলিয়ায় আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গায় ৪ পুলিশ হত্যা দিবস পালিত ঝালকাঠিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান দুটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ২৮ হাজার টাকা জরিমানা গৌরনদী কাঁঠালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত দর্শনা থানার ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আজ, ৪ বছরে ৪ ওসি মাদকাসক্ত ছেলেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দিলেন বাবা ফেসবুকে কমেন্ট করায় যুবক খুন
স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে চোখের সামনেই ফাঁস নিলেন স্বামী

স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে চোখের সামনেই ফাঁস নিলেন স্বামী

আজকের ক্রাইম ডেক্স
গাজীপুরের শ্রীপুরে স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে, মুখে কাপড় গুঁজে তার চোখের সামনেই হৃদয় (২২) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে শ্রীপুর পৌরসভার মসজিদ মোড় এলাকার আফাজ উদ্দিনের ভাড়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত হৃদয় (২২) মাগুরার মোহাম্মদপুর থানার পারিঘাটা গ্রামের পিঞ্জর মিয়া শাহিনের ছেলে। প্রায় দুই যুগ ধরে হৃদয়ের বাবা তার শ্বশুড়বাড়ি শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া পশ্চিম খন্ড গ্রামের নুরুল চেয়ারম্যানের বাড়ির এলাকায় বসবাস করে আসছিলেন। তার কাপড়ের ব্যবসা ছিল। এদিকে হৃদয়ের স্ত্রীর নাম আর্জিনা। এটি তার দ্বিতীয় বিয়ে।

জানা গেছে, তিন-চার মাস আগে আর্জিনার সঙ্গে হৃদয়ের বিয়ে হয়। তাদের বিয়ের বিষয়টি গোপন ছিল। বিয়ের পর হৃদয় শ্রীপুর পৌরসভার মসজিদ মোড় এলাকার আফাজ উদ্দিনের বহুতল ভবনের নিচ তলায় একটি ফ্ল্যাটের কক্ষ ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করেন। সেখান থেকে আর্জিনা তার বাবার বাড়ি যাওয়া-আসা করেন। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে আর্জিনা ওই ভাড়া বাড়িতে আসেন খবর পেয়ে হৃদয়ও যান তার সঙ্গে দেখা করতে। কিছু সময় পর সে আবার দোকানে চলে যায়। আধঘন্টা পর ফিরে এসে হৃদয় প্রথমে আর্জিনার বাম হাত, পরে ডান হাত খাটের সঙ্গে বেঁধে ফেলেন। এরপর দুই পা বেঁধে ফেলে মুখে কাপড় গুঁজে দিয়ে আত্মহত্যার জন্য ঘরে ফ্যানের হুকে ওড়না বাঁধতে থাকে। এসময় আর্জিনা চিৎকার শুরু করলে তার মুখের ভেতর গুঁজে দেওয়া কাপড় বের হয়ে যায় কিন্তু হৃদয় ফের তার মুখে গেঞ্জি গুঁজে দেন। এরপরই হৃদয় আর্জিনার সামনেই ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে আর্জিনার ডাক চিৎকারে কিছু সময় পর স্থানীয়রা ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে হৃদয়ের ঝুলন্ত মরদেহ এবং আর্জিনাকে হাত-পা বাঁধা ও মুখে কাপড় গুজে দেওয়া অবস্থায় দেখতে পান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হৃদয়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

মৃত হৃদয়ের নানা এমরান হোসেন বলেন, হৃদয়ের আগে আরেকটি স্ত্রী আছে। তার নাম মোহনা। দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। তবে কেন, কি কারণে হৃদয় আত্মহত্যা করতে পারে তা আমি জানতে পারিনি।

দ্বিতীয় স্ত্রী আর্জিনা বলেন, আমি জানতাম হৃদয়ের আগে একটা স্ত্রী আছে। সে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে আমি তা মেনে নিয়ে বিয়ে করি। কিন্তু কি কারণে হৃদয় আত্মহত্যা করলো সে বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা।

শ্রীপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) এনায়েত কবির বলেন, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019