রবিবার, ১৩ Jun ২০২১, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন

Notice :
চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর
সর্বশেষ সংবাদ :
নকল গয়না নিয়ে মারামারি, কনেকে তালাক, জরিমানা দিয়ে রক্ষা বরপক্ষের। পুলিশ সুপারের নির্দেশে দুগ্ধপোষ্য মুমূর্ষ শিশুকে উদ্ধার করলো ডিবি পুলিশ। সিলেট এবছর শাহ্ জালাল (রহ.) মাজারে ওরস হচ্ছে না। বানারীপাড়ায় ইয়াবা সহ ঝালকাঠির মাদক কারবারি বিশ্বজিৎ আটক। শাস্তি মেনে নিয়েছেন সাকিব, হচ্ছে না শুনানি। কাজ বাগিয়ে নিতে গণপূর্ত অফিসে আ’লীগ নেতার অস্ত্রের মহড়া। ব্যবসার নামে প্রতারণার প্রতিবাদে তালতলী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন। পাবজি খেলাকে কেন্দ্র করে বিরোধ, ফরিদপুরে অবরুদ্ধ একটি পরিবার। করোনার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন : সিইসি। ভোলায় তথ্য গোপন করে একাধিক বিয়ে করে ২ নারী গ্রেপ্তার।
বানারীপাড়ায় কিশোরদের সুপথে ফেরাতে ওসি হেলাল’র প্রশংসনীয় পদক্ষেপ।

বানারীপাড়ায় কিশোরদের সুপথে ফেরাতে ওসি হেলাল’র প্রশংসনীয় পদক্ষেপ।

রাহাদ সুমন, বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বরিশালের বানারীপাড়ায় কিশোর ও তরুণদের যাবতীয় অনৈতিক কাজ থেকে বিরত রাখতে থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) হেলাল উদ্দিন প্রশংসনীয় পদক্ষেপ নিয়েছেন। এন্ড্রয়েড মুঠোফোনে বিভিন্ন ধরণের গেমস ও পর্ণোগ্রাফি দেখে এবং এলাকায় এলাকায় গ্যাং সৃষ্টি করে স্থানীয় কিশোররা যখন বিপথে যাওয়া শুরু করেছে ঠিক তখনি তাদের সর্বনাশা এ বদঅভ্যাস ও পথ থেকে ফেরাতে তিনি গত কয়েকদিনে বানারীপাড়া পৌর শহর,চাখার ও সদর ইউনিয়নসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে দেড় শতাধিক কিশোর ও তরণককে এন্ড্রয়েড মুঠোফোনসহ আটক করে থানায় এনে তাদের সচেতনতামূলক কাউন্সিলিং করেন। এসময় ওসি হেলাল উদ্দিন ইভটিজিং,মাদক, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ,গেমস ও পর্ণোগ্রাফির কুফল সম্পর্কে বিশদ আলোচনার মাধ্যমে তাদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেন। এসময় তিনি অভিভাবকদেরকেও সন্তানদের সুপথে রাখতে তাদের ভূমিকার বিষয়ে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন। পরে মুচলেকা নিয়ে কিশোর ও তরুণদের তাদের অভিভাবকদের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়। এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া থানার ওসি মো. হেলাল উদ্দিন বলেন বয়োঃসন্ধিকালে কিশোর ও তরুণদের ভুল পথে চলে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। স্পর্শকাতর এ সময়ে বাবা-মাকে বন্ধুর ভূমিকায় অবর্তীণ হয়ে তাদের সুপথ বাতলে দিতে হয়। নতুন প্রজন্ম যদি অন্ধকার পথে চলে যায় তাহলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ বির্নিমাণের স্বপ্ন ভূলুন্ঠিত হবে। তাই কিশোর-তরুণদের সুপথে ফেরাতে তাদের থানায় এনে সচেতনতামূলক কাউন্সিলিং করা হয়েছে। এর ফলে ভবিষ্যতে তারা এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন ব্যবহার না করাসহ অনৈতিক পথে না গিয়ে সুপথে চলবে এ অঙ্গীকার করেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পরে তিনি প্রতিটি স্কুল,কলেজ ও মাদ্রাসায় গিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সচেতনতামূলক কাউন্সিলিং করবেন বলেও জানান। এছাড়া ক্রীড়াঙ্গনকে সমৃদ্ধ করে কিশোর ও তরুণদের মাঠমূখি করার বিষয়ে ভূমিকা রাখবেন বলেও জানান তিনি। এদিকে কিশোর ও তরুণদের বিবেককে জাগ্রত করে যাবতীয় অনৈতিক কাজ থেকে দূরে রেখে তাদের আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে ওসি মো. হেলাল উদ্দিনের দূরদর্শি এ ইতিবাচক পদক্ষেপকে বানারীপাড়া প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ ও অভিভাবকসহ এলাকার সচেতনমহল সাধুবাদ জানিয়েছেন। ###

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English