রবিবার, ১৩ Jun ২০২১, ১১:৩৫ অপরাহ্ন

Notice :
চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর
সর্বশেষ সংবাদ :
ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা পরিমনির সংবাদ সম্মেলন। আপনি কি আপনার অধিকার থেকে বঞ্চিত। বাবুগঞ্জের কেদারপুর ইউপি নির্বাচনে জামাল উদ্দিনের পক্ষে প্রচারণায় সাবেক সাংসদ টিপু সুলতান। মা-ছেলেসহ তিনজনকে হত্যায় এএসআই সৌমেন বরখাস্ত। পরকীয়া’র জেরেই স্ত্রী-পুত্রসহ তিনজনকে হত্যা করেন সৌমেন। বাবুগঞ্জে ওসির ব্যক্তি উদ্যোগে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে। সিলেটের আইনজীবীকে ১০ টি ট্যাবলেট খাইয়ে হত্যার দায় স্বীকার স্ত্রীর। বাকেরগঞ্জের ওসিসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আইজিপিকে হাইকোর্টের নির্দেশ। স্ত্রীকে ২ কোটি টাকার ফ্ল্যাট উপহার দিয়ে দুদকের জালে ঝালকাঠির সাব-রেজিস্ট্রার। পিরোজপুরে নেশার টাকা না পেয়ে বাবাকে কুপিয়ে জখম।
বাবুগঞ্জে পঙ্গুত্ব নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন প্রতিপক্ষের হামলায় আহত মোশাররফ।

বাবুগঞ্জে পঙ্গুত্ব নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন প্রতিপক্ষের হামলায় আহত মোশাররফ।

Exif_JPEG_420

মোহাম্মাদ আলী, বাবুগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুরে প্রতিপক্ষের অতর্কিত হামলায় আহত মোশাররফ আকন এখন পঙ্গুত্ব নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। দীর্ঘ প্রায় এক বছর যাবত তিনি স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এক বছর আগে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী মজিবর আকনের ছেলে মাসুম আকন তার উপর অর্তকিত হামলা চালিয়ে মোশাররফ আকনের এক পা ভেঙে ফেলে। পরে তিনি বাবুগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু অর্থের অভাবে ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য তার দায়ের কৃত মামলার কোন তদারকি করতে পারছেন না মোশাররফ আকন। দীর্ঘ সময় পার হলেও কোনো সুরাহা পাননি ভুক্তভোগী পঙ্গু মোশাররফ আকন। অপরদিকে মামলার আসামীরা ক্ষতিপূরণ দেওয়া তো দুরের কথা উল্টো মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি প্রধান করছেন বলেও অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

পঙ্গু মোশাররফ আকন বাবুগঞ্জ উপজেলার ২নং কেদারপুর ইউনিয়নের কেদারপুর গ্রামের (৭নং ওয়ার্ডের) আঃ রহিম আকনের ছেলে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাবুগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মোঃ আজাদ জানান, মামলার চার্জসিট জমা দেওয়া হয়েছে। আদালতে মামলাটি চলমান আছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রেজাউল করিম জানান, বিষয়টি নিয়ে মামলা চলমান রয়েছে। সরকারিভাবে সে যাতে পঙ্গু ভাতা পায় সেজন্য তার কাগজপত্র ইতিমধ্যে উপজেলা সমাজসেবা অফিসে জমা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ব্যক্তিগতভাবে আমি যতটুকু পেরেছি সাহায্য সহযোগিতা করেছি।

মোশাররফ আকন বলেন, কাঠমিস্ত্রীর কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতাম। দীর্ঘ এক বছর যাবত কাজ করতে পারছিনা। চিকিৎসা খরচ তো দুরের কথা এখন পরিবার পরিজনদের নিয়ে বেচে থাকা দুষ্কর হয়ে পরেছে। এক বছর যাবত জনপ্রতিনিধিদের কাছে ধর্না দিয়েও কোন লাভ হয়নি। কোন ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করার জন্য কেউ এগিয়ে আসেনি।
অপর দিকে প্রতিপক্ষ মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি প্রধান করছে। মামলা তুলে না নিলে অপর পা ভেঙ্গে ফেলারও হুমকি দিচ্ছে। তিনি এব্যাপারে প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।
এব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নূরে আলম বেপারী জানান, মোশাররফ আকনের পক্ষ থেকে কেউ সাহায্য সহযোগিতার জন্য আসেনি। আসলে অবশ্যই তাকে সাহায্য সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন চেয়ারম্যান নূরে আলম বেপারী।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English