বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
বোনের বাসায় বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ।

বোনের বাসায় বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ।

আজকের ক্রাইম ডেক্স
ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে খালাতো বোনের বাসায় বেড়াতে এসে বোনের স্বামীর সহযোগিতায় গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৯) দুপুরে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে বোয়ালমারী থানায় মামলা করেছেন। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে থানা পুলিশ আটজনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- আলফাডাঙ্গা উপজেলার জয়দেবপুর গ্রামের ওলিয়ার ফকিরের ছেলে হাসমত ফকির (৩২), বোয়ালমারী উপজেলার চতুল ইউনিয়নের রামদেবনগর গ্রামের কামরুল শেখের ছেলে শাহিন শেখ (২১), একই ইউনিয়নের বনচাকি চরপাড়া গ্রামের গোলাম রসুল মোল্যার ছেলে জয়নাল আবেদীন (২৯), আ. কুদ্দুস মোল্যার ছেলে রাজু মোল্যা (২০), হেমায়েত হোসেনের ছেলে মো. মফিজুল মোল্যা (২১), চরশুকদেবনগরের আবু তালেব মোল্যার ছেলে রিফুল মোল্যা (৩৯), রামদেবনগর গ্রামের নূর মোহাম্মদ শেখের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৫) ও মিন্টু মোল্যা।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, নড়াইল জেলার মহেশখালীর ওই গৃহবধূ গত ২৭ এপ্রিল তার খালাতো বোনের বাড়ি ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলার শিরগ্রামে বেড়াতে আসেন। কিন্তু গৃহবধূর খালাতো বোন এলিনা বেগম সেদিন তার জা আফরোজা বেগমের চিকিৎসার জন্য বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছিলেন। খালাতো বোনের সাথে দেখা করার জন্য গৃহবধূ বিকেলে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। রাতে এলিনা বেগমের স্বামী কাওসার মোল্যার ছেলে মিন্টু মোল্যার সঙ্গে বাড়ি ফেরার পথে বোয়ালমারী উপজেলার চতুল ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামে পৌঁছালে মিন্টু ওই গৃহবধূকে ফুসলিয়ে এবং প্রলোভনসহ ভয়ভীতি দেখিয়ে পার্শ্ববর্তী মেহগনি বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে মিন্টু মোল্যার সহযোগিতায় আগে থেকেই উপস্থিত তার সাত বন্ধু ওই গৃহবধূকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে।

গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে বোয়ালমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নুরুল আলমের নেতৃত্বে বুধবার (২৮ এপ্রিল) রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে মিণ্টু মোল্যার স্বীকারোক্তিতে বাকি সাত আসামিদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার বোয়ালমারী থানায় মিন্টু মোল্যার সহযোগিতা উল্লেখপূর্বক বাকি সাত জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছেন।
বোয়ালমারী থানার ওসি আরো বলেন, রাত সাড়ে ১১টায় একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ওই ৮ আসামিদের গ্রেফতার করে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English