রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৯:০০ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালে শরীরে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে রোগী নিয়ে হাসপাতালে। স্থগিত নির্বাচনী এলাকায় বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররাই দায়িত্ব পালন করবেন। বরিশালের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক কাজী আজাদের মৃত্যুতে বানারীপাড়া প্রেস ক্লাবের শোক। রাতে কালবৈশাখী ঝড়ের আভাস। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের রোগমুক্তি কামনায় হেফাজতের ঢাকা মহানগর সভাপতি জুনায়েদ গ্রেফতার। পাত্তাই দিচ্ছে না কেউ ভয়ংকর করোনাকে। সিলেটের করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু !! ক্রমেই বাড়ছে করোনার সংক্রামন। বাবুগঞ্জে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল কালো বাজারে বিক্রির অভিযোগ। বাবুগঞ্জে গৃহবধুর লাশ হাসপাতালে রেখে পালাল স্বামী।
তালতলীতে সাবেক শ্রেষ্ঠ ইউপি সদস্যের মানবেতর জীবনযাপন। আজকের ক্রাইম-নিউজ

তালতলীতে সাবেক শ্রেষ্ঠ ইউপি সদস্যের মানবেতর জীবনযাপন। আজকের ক্রাইম-নিউজ

(তালতলী প্রতিনিধি)

বরগুনার তালতলী সদর উপজেলার বড়বগী ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য (মেম্বর) স্বপন হাওলাদার সহজ সরল মানুষ, সততার কারণে দুই বার পেয়েছিলেন বরগুনা জেলায় শ্রেষ্ঠ ইউপি সদস্য হিসেবে পুরষ্কার, এলাকায় অনেক উন্নয়নের কাজ করেছেন, সকলের কাছে স্বপন মেম্বার নামে পরিচিত।

সম্পত্তি বা জায়গা জমি বলতে ছিল একটি সরকারি খাস জমি ওই জমিতে বসবাস করত স্বপন হাওলাদার, অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ভেঙে ফেলা হয় তাঁর স্বপ্নের বাড়ি, বৃদ্ধ মা ও স্ত্রী সহ তিন সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন সাবেক এই ইউপি সদস্য।

একসময়ের ইউপি সদস্য পায়ে হেঁটে মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে তাদের দুঃখ, সুখের কথা শুনতেন, ভাগ্যের পরিহাসে তাকে এখন ছোট্ট একটি চায়ের দোকানে দিয়ে সংসার চালাতে হচ্ছে। স্বপন তালতলী সদর উপজেলার বড়বগী ইউনিয়নের তালতলী উপজেলা পরিষদের সাথে তালতলী পাড়া গ্রামের মৃত মহব্বত আলীর ছেলে। তার বয়স ৪৫ বছর।

এর আগে তিনি ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তালতলী পাড়া এলাকায় ইউপি সদস্য (মেম্বার) নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করেন। গ্রামের অবকাঠামো উন্নয়ন করলেও তিনি তার ভাগ্যের পরিবর্তন করতে পারেননি।
বর্তমানে তিনি যে ঘরে বসবাস করেন সেটি ঝুঁকিপূর্ণ। ঝড়-তুফানের মধ্যেও তিনি ঘরটি ছেড়ে কোথাও যান না। এ ঘরটি তার শেষ ঠিকানা।

কয়েকজন প্রতিবেশী জানান, মেম্বার থাকাকালে স্বপন সততার সঙ্গে কাজ করেছেন। সব সময় অসহায়দের পাশে ছিলেন। এখন তিনি নিজেই জীর্ণশীর্ণ ঘরে বসবাস করছেন।

স্বপন হাওলাদার বলেন, লোকলজ্জার ভয়ে দূরে গিয়ে রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেছি। শেষ সম্বল টুকু সরকারি খাস জমি ছিল এখন তা ভেঙে ফেলা হয়েছে, একটি ঘর পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ চান তিনি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English