বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৩৭ অপরাহ্ন

Notice :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন, মোবাইল নং 01712573978
সর্বশেষ সংবাদ :
দেশে সোনার দাম আবার কমছে। আজকের ক্রাইম-নিউজ হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিবকে ‘পাগল’ বললেন নিক্সন চৌধুরী নরসিংদী জেলা ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারসহ ডাকাত গ্রেফতার ৫। আজকের ক্রাইম-নিউজ এবার যখন ধরব, ফাইনাল হয়ে যাবে: যুবলীগ চেয়ারম্যান। আজকের ক্রাইম-নিউজ কুমিল্লায় বিকট আওয়াজে ছাদ থেকে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মৃত্যু। আজকের ক্রাইম-নিউজ ঝালকাঠি সাংবাদিক ক্লাবের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা: মোতালেব আহবায়ক , নজরুল সদস্য সচিব যে কোনো ষড়যন্ত্র ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করা হবে: এমপি শাওন। আজকের ক্রাইম-নিউজ একটি জাতিকে ধ্বংস করতে মাদকই যথেষ্ট : ডিসি খাইরুল আলম। আজকের ক্রাইম-নিউজ রিমান্ড আদেশ পাওয়া হাজতির রহস্যজনক মৃত্যু। আজকের ক্রাইম-নিউজ ঝালকাঠি জেলা বিএম‌এস‌এফ সভাপতি আজমীর হোসেন তালুকদারের বাসভবনের স্টোর রুমে রহস্যজনক অগ্নীকান্ড
চুয়াডাঙ্গার বেগমপুর স্কুল পড়ুয়া এক শিশুকন্যা ধর্ষণ: অভিযুক্ত লম্পট দাদা মুনতাজ গ্রেপ্তার। আজকের ক্রাইম-নিউজ

চুয়াডাঙ্গার বেগমপুর স্কুল পড়ুয়া এক শিশুকন্যা ধর্ষণ: অভিযুক্ত লম্পট দাদা মুনতাজ গ্রেপ্তার। আজকের ক্রাইম-নিউজ

হৃদয় খান দর্শনা

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের হরিশপুর গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক পাড়ার দাদার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে দাদা কর্তৃক ৭ বছর বয়সের নাতনী ধর্ষনের শিকার হয়েছে। গত মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে এ ধর্ষনের ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে ধর্ষিতা শিশুর মা বাদি হয়ে দর্শনা থানায় লম্পট দাদার বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে। গতকাল দর্শনা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক দাদা মুন্তাজ হোসেনকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে। মামলাসূত্রে জানাগেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের নদাগাঁ-হরিশপুর গ্রামের মুন্তাজ আলীর ছেলে হাফিজুল ইসলামের সাথে একই ইউনিয়নের উজলপুর বিলপাড়ার আসমা বেগমের পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়। আছমা বেগম বিবাহের পর থেকে স্বামী হাফিজুলের সাথে হরিশপুর গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিকের পাশে শ্বশুর মুন্তাজের বাড়িতে বসবাস করে আসছিলো। বসবাসের কয়েক বছর পর থেকে লম্পট শশুর আসমা বেগমকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। পরে আসমা খাতুন তার স্বামী হাফিজুলের কাছে বিষয়টি বললে আসমা খাতুনের পিতার বাড়ি উজলপুর বিলপাড়ায় এসে হাফিজুল ও আসমা বসবাস শুরু করে। এ দির্ঘ সময়ে আসমা খাতুনের শিশু কন্যা হরিশপুর গ্রামে দাদা মুন্তাজের বাড়িতে প্রায়ই বেড়াতে যেত। এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার আসমা খাতুনের শিশু কন্যা হরিশপুর গ্রামে দাদা মুন্তাজের বাড়িতে বেড়াতে যায়। গত মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে শিশু কন্যার দাদী পুকুরে গুগলী তুলতে যাওয়ার সুজগে বাড়িতে কেউ না থাকায় দাদা মুন্তাজ শিশু কন্যা নাতনীকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। পরে গতকাল দুপুরের দিকে শিশু কন্যা তার মা আসমা খাতুনকে বিষটি বললে আসমা খাতুন বিকাল ৫টার দিকে দর্শনা থানায় এসে নিজে বাদী হয়ে তার শশুর লম্পট মুন্তাজের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দ্বায়ের করে। পরে গতকাল সন্ধা ৭টার দিকে দর্শনা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক লম্পট দাদা মুন্তাজকে আটক করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ধর্ষিতা শিশু কন্যাটি পুলিশের হেফাজতে ছিলো। এবিষয়ে দর্শনা থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা(ওসি) শেখ মাহাবুবুর রহমান বলেন, মামলা অনুযায়ী আসামী হরিশপুর গ্রামের খোকাই মন্ডলের ছেলে শিশু কন্যার দাদা মুন্তাজকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই সাথে শিশু কন্যাটির পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধর্ষনের আলামত পাওয়া গেছে। আজ শিশুটির ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য নেওয়া হবে। সেই সাথে আসামীকে জেল হাজতে পাঠানো হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019