শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:১২ অপরাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
তামিমা কার, ফয়সালা হবে আদালতে। আজকের ক্রাইম-নিউজ বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ, ১৮ রুটে বাস চলাচল বন্ধ। আজকের ক্রাইম-নিউজ বনানীতে বিএনপির মশাল মিছিলে পুলিশের হামলার অভিযোগ। আজকের ক্রাইম-নিউজ এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা ঘোষিত সময়ে হচ্ছে না। আজকের ক্রাইম-নিউজ আগৈলঝাড়ায় অর্ধ কোটি টাকা ব্যয়ে গোডাউন সড়ক নির্মাণের উদ্বোধন। আজকের ক্রাইম-নিউজ জুসের সাথে ওষুধ খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, কারাগারে পুলিশ সদস্য। আজকের ক্রাইম-নিউজ গাঁজা বেচে মাসে ৪ কোটি টাকা আয়। আজকের ক্রাইম-নিউজ রমজানের তারিখ ঘোষণা করল ইন্দোনেশিয়া। আজকের ক্রাইম-নিউজ মেয়েকে ধর্ষণের পর মাকেও শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব। আজকের ক্রাইম-নিউজ প্রেমিক-প্রেমিকার একসঙ্গে বিষপান, প্রেমিকের মৃত্যু। আজকের ক্রাইম-নিউজ
মানুষের উদ্ধেগ উৎকন্ঠায়- প্রধানমন্ত্রীর নির্ঘুম রাত! আজকের ক্রাইম-নিউজ

মানুষের উদ্ধেগ উৎকন্ঠায়- প্রধানমন্ত্রীর নির্ঘুম রাত! আজকের ক্রাইম-নিউজ

সোহেল সানি

সবাই যখন ঘুমে বিভোর তখনও জেগে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। নির্ঘুম রাতটিতে ছিলেন সরব। ঘণঘোর আঁধারেও যে নিথর নিস্তদ্ধ হয়ে থাকা মানুষ তিনি নন, তা প্রকৃতির নানা তান্ডবের প্রাক্কালে দেখা গেছে। তিনি গতকাল ছিলেন গভীর চিন্তামগ্ন। সম্ভাব্য আঘাত কি করে সামাল দেয়া যায়, সে নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন দিনভর। রাতে যেনো, সে চিন্তা আরও প্রবলতর হয়ে ওঠে। সম্ভাব্য ছোবলের আশঙ্কায় কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়া প্রধানমন্ত্রী তিনি নন, তিনি মহা দুর্যোগে যেন দেশ ও জাতির পাশে দৃশ্যমান এক অতন্দ্র প্রহরী। করোনার দুর্যোগ মোকাবিলায় তাঁর কর্মপ্রয়াসে ফুটে উঠেছে কতটা মানুষের জন্য নিবেদিত। আবহাওয়াবিদরাই মূলত,
চরম উৎকন্ঠা, উদ্ধেগ ছড়িয়ে নির্ঘুম করে রেখেছিলো প্রধানমন্ত্রীর চোখ। আজ বিকেলে এ আঘাত হানতে পারে এরকম ধারণা করা হচ্ছে।
বিভিন্নভাবে সময়ে সময়ে খোঁজখবর রাখেন তিনি। আর সঙ্গে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের তাগিদ ছিলোই। রাতভর ব্যস্ত সময় পার করেছেন প্রধানমন্ত্রী- সংশ্লিষ্ট সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে।
আকাশ ঝড়বৃষ্টি তান্ডব চালিয়ে আঘাত হানতে পারে এরকম দক্ষিণ আর পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের উৎকন্ঠাকে আপনমনে দেখেছেন তিনি। দুর্গত অঞ্চলগুলোর উধর্বতন কর্মকর্তারাও ঘুমাতে পারেননি প্রধানমন্ত্রীর তাগিদে।
কি করে ঘুমাবেন প্রধানমন্ত্রী ?
এদেশকে তাঁর মতো করে কে আর ভালোবাসতে পারেন? এ দেশের দুঃখদুর্দশাগ্রস্থ মানুষের চিন্তা তাঁর ন্যায় কে বা আর করেন!
তিনি তো জাতির পিতার কন্যা, নিছক সরকার প্রধান নন। তাই তাঁর দায়িত্ব কর্তব্যবোধ অসীম,অশেষ।
তিনি উপলব্ধি করছিলেন, আশঙ্কাজনক এলাকার মানুষ কত না উৎকন্ঠায় ভয়ে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে।
সংশ্লিষ্ট এলাকার মন্ত্রী এমপি, বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসকসহ স্থানীয় নির্বাহী কর্মকর্তাদের সঙ্গেও ফোনে যোগাযোগ রেখেছেন। আঘাত হানলে পরিস্থিতি কিভাবে সামাল দিতে হবে – তার নির্দেশনা দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, একদিকে এ কাজ করেছেন, অন্যদিকে আল্লাহর দরবারে হাততুলে প্রার্থনায় করেছেন, কুরআন পড়েছেন। গণভবন সূত্র থেকে পাওয়া খবরে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী সেহরি খাওয়ার পরেও শয্যাশায়ী হননি। নামায আদায় করেছেন আর ফাঁকে ফাঁকে খবর সংগ্রহ করেছেন সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ ভালো আছে, আজ বিকাল পর্যন্ত ভালো থাকুক বাংলাদেশ। মহান আল্লাহর কৃপায় রক্ষা পাক দেশ ও দেশের মানুষ।
লেখকঃ সিনিয়র সাংবাদিক ও কলামিস্ট

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English