শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
মসজিদে মাস্ক না পরায় সংঘর্ষে আহত ১০। সকালে সন্তান জন্ম দিয়ে বিকেলে করোনায় সংবাদকর্মীর মৃত্যু। জীবননগরে মানব সেবা সংগঠনের উদ্যোগে জায়নামাজ ও তসবিহ বিতরণ। ১৪-আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন কক্সবাজারে(এপিবিএন)এ নতুন অধিনায়ক এ যোগদান। চট্টগ্রামে স্কুলছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ধারণ, শিক্ষক গ্রেফতার। ছেলে অর্থলোভে পাগল সাজিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করলেন বাবাকে। প্রধানমন্ত্রীর পদ নিয়ে সৃষ্ট অন্তঃকলহ স্বাধীনতার প্রশ্নে ভুলে যান জাতীয় চার নেতা। হেফাজত নেতা মাওলানা জুবায়ের গ্রেফতার। উপজেলা চেয়ারম্যানের কিল-ঘুষিতে এক বৃদ্ধের করুণ মৃত্যু। আবর্জনার গাড়িতে নেওয়া হচ্ছে করোনার মৃতদেহ।
ঝালকাঠি নলছিটিতে পাতাল ড্রেজার জ্বালিয়ে দিলো ভ্রাম্যমান আদালত

ঝালকাঠি নলছিটিতে পাতাল ড্রেজার জ্বালিয়ে দিলো ভ্রাম্যমান আদালত

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:
ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া গ্রামের চৈমাথা খান বাড়ির পুকুর থেকে অবৈধভাবে আত্মঘাতী স্যালো ড্রেজার মেশিন বসিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বালু উত্তোলন করে আসছিল একটি চক্র।

খবর পেয়ে ২৮ ডিসেম্বর শনিবার দুপুর ২টার দিকে নলছিটি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুম্পা সিকদার পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে অবৈধ স্যালো ড্রেজার মেশিনটি জ্বালিয়ে দেন। এসময় উপজেলা প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে ড্রেজার মালিক পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

দপদপিয়া খান বাড়ির পুকুরটিতে স্যালো মেশিনে বালু উত্তোলনের কারনে পুকুরের ঘাটলা এবং পাড়ে ব্যাপক ফাটল ও ভূমি ধসের উপক্রম হয়েছিল।

স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, অবৈধ পাতাল ড্রেজারটির মালিক বাকেরগঞ্জ উপজেলার চরাদী ইউনিয়নের বাসিন্দা মোঃ মকবুল হোসেনে।

স্যালো ড্রেজার স্থাপন করে অবৈধ ভাবে সুবিধামত বালু উত্তোলন করে বাড়ী ও মাঠ ভরাটের কাজ করা হচ্ছে। ভূগর্ভস্থ্য বালু ও মাটি এভাবে উত্তোলন করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ হলেও প্রচলিত আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে একদল অসাধূ ব্যবসায়ী দেদারছে বালুর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল।

নলছিটি উপজেলার নির্বাহী অফিসার রুম্পা সিকদার বলেন, এভাবে বালু উত্তোলন করা পরিবেশের জন্য মারাত্মক হুমকি। নলছিটি উপজেলার কোনো স্থানে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করতে দেয়া হবে না।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English