২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫৩ অপরাহ্ন, ১২ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি, শুক্রবার, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
মায়ের জানাজায় অংশ নিতে ফিরলেন ইতালি থেকে, সড়কে ঝরল প্রাণ অনিবন্ধিত সব স্বাস্থ্যকেন্দ্র দ্রুত বন্ধ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঝালকাঠি’তে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) এর উদ্যোগে প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিএমপি কমিশনার এর অংশগ্রহণ বিরামপুর খানপুর ইউনিয়নে স্বল্প মূল্যে টিসিবির পন্য বিতরনের শুভ উদ্বোধন দামুড়হুদার কুড়ুলগাছি শিক্ষক – অভিভাবক সমাবেশ সকলকে সমন্বয়ের মাধ্যমে শিক্ষার মান উন্নয়নে কাজ করতে হবে, -জেলা প্রশাসক তেল-গ্যাস উত্তোলনে বিদেশিদের বিনিয়োগের আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী প্রতারণার অভিযোগে স্বামীসহ যুব মহিলা লীগ নেত্রী মিম গ্রেপ্তার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত জিকে শামীমের জামিন বাংলাবান্ধা-পঞ্চগড় মহাসড়কে বালু-পাথর ব্যবসা লোড আনলোডে জনদূভোর্গ সড়ক দূর্ঘটনা আশংকা
ফরিদপুরে ঘু’ম’ন্ত শিশুকে ধান’ক্ষেতে নিয়ে হ’ত্যা করল বাবা

ফরিদপুরে ঘু’ম’ন্ত শিশুকে ধান’ক্ষেতে নিয়ে হ’ত্যা করল বাবা

ফরিদপুরে ঘু’ম’ন্ত শিশুকে ধান’ক্ষেতে নিয়ে হ’ত্যা করল বাবা

ফরিদপুরের সদরপুরে আড়াই বছরের ঘু’মন্ত ছেলেকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে ধা’নক্ষেতে ফেলে শ্বাসরোধ করে হ’ত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে বাবার বিরুদ্ধে।

শুক্রবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার ভাসানচর ইউনিয়নের মকবুল মুন্সীডাঙ্গী গ্রামের বাড়ির পাশের ধানক্ষেত থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত শিশু রহমত প্রামাণিক ওই গ্রামের হানিফ প্রামাণিকের (৩০) ছেলে। এ ঘটনার পর থেকে হানিফ প্রামাণিক পলাতক রয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, গত তিন বছর আগে হানিফ প্রামাণিক বিয়ে করে স্বপ্না আক্তারকে। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে নানা বিষয় নিয়ে ঝগড়া লেগেই থাকত। হানিফ

একজন লেগুনাচালক। শিশু রহমতের জন্মের পর থেকেই স্বপ্নাকে স’ন্দেহ করত হানিফ। তিনি মাঝে মধ্যেই বলত রহমত তার সন্তান নয়। এ নিয়ে একাধিকবার ঝগড়া-বিবাদ হয়েছে স্ত্রী স্বপ্নার সঙ্গে।

শিশুটির মা স্বপ্না আক্তার বলেন, বেশ কিছুদিন সন্তান নিয়ে স্বামীর সঙ্গে আমার বিরোধ চলছিল। ছেলেকে আমার স্বামী তার সন্তান বলে স্বীকার করছিল না। আমি বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি আসার পর আমার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে।

নিহত শিশুর দাদা শুকুর মুন্সী জানান, রাতে তার পুত্রবধূ শিশুস’ন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। পরবর্তীকালে রাত ১০টার দিকে ঘুম ভেঙ্গে দেখেন তার পাশে সন্তান নেই। এ সময় স্বপ্না চিৎকার শুরু করেন। স্থানীয়রা রাতেই বাড়ির আশপাশে খোঁজ করেন। পরে ধানক্ষেতে শিশু রহমত প্রামাণিকের লাশ পাওয়া যায়।

শিশুটির মা স্বপ্না আক্তার বলেন, বেশ কিছুদিন সন্তান নিয়ে স্বামীর সঙ্গে আমার বিরোধ চলছিল। ছেলেকে আমার স্বামী তার সন্তান বলে স্বীকার করছিল না। আমি বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি আসার পর আমার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে।

রাত ১০টার দিকে আমি ঘুম থেকে জেগে দেখি আমার সন্তান পাশে নেই। এরপর অনেক খোঁজাখুঁজি করে বাড়ির পাশে ধান ক্ষেতের ভেতর আমার স’ন্তানের লা’শ পাই। পরে পু’লি’শকে খবর দিলে পু’লি’শ এসে লা’শ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর থেকে আমার স্বামী পলাতক রয়েছে।
সদরপুর থা’না’র ওসি মো. লুৎফর রহমান জানান, খবর পেয়ে রাতেই লা’শ উ’দ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের মা শনিবার সকালে তার স্বা’মীকে

সদরপুর থা’না’র ওসি মো. লুৎফর রহমান জানান, খবর পেয়ে রাতেই লা’শ উ’দ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের মা শনিবার সকালে তার স্বা’মীকে

আসামি করে একটি হ’ত্যা মা’ম’লা দায়ের করেছেন। আমরা হানিফ প্রামাণিককে আ’ট’কের জন্য জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019