২২ Jul ২০২৪, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন, ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি, সোমবার, ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
ভোলায় দেখা মিলেছে বিষাক্ত রাসেল ভাইপার সাপ

ভোলায় দেখা মিলেছে বিষাক্ত রাসেল ভাইপার সাপ

মোঃ হাফিজ উল্যাহ ভোলা প্রতিনিধি ।। ভোলার দৌলতখান উপজেলায় দেখা মিলেছে বিষাক্ত রাসেল ভাইপার সাপের। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের বটতলা এলাকার জালু মাঝি নামে এক ব্যক্তির বসতঘরে সাপটি বিষাক্ত ছোবলে তিনটি বিড়াল মেরে ফেলে। ঘরের লোকজন শব্দ শুনে রান্না ঘরের দিকে গিয়ে সাপটি দেখতে পেয়ে চিৎকার দিয়ে সকলে ঘরের বাহিরে বেরিয়ে যায়। এ নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এলাকার এক যুবক জাহিদ মৃর্ধা জানান, বিভিন্ন সময় ফেসবুকে রাসেল ভাইপার সাপ দেখেছি। এবার বাস্তবে নিজই রাসেল ভাইপার সাপ দেখতে পেলাম। তিনি বলেন, সাপটিকে ঘরের লোকজন দেখতে পেয়ে আতঙ্কিত হয়ে ঘর থেকে চিৎকার করে বেরিয়ে আসলে এলাকার যুবক মোঃ রিয়াজ, মিঠু,বাবু সহ কয়েকজন সাপটির গর্তের মুখে কারেন্ট জাল বসিয়ে মাটি খুড়ে টেটার আঘাতে মেরে ফেলতে সক্ষম হয়েছি আমরা। রাসেল ভাইপার সাপটি লম্বায় প্রায় আড়াই হাতের মতো। তবে ঐ বসতঘরের পরিবারের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে, কারণ তারা বলছে এরকম আরও একটু সাদা রঙের সাপ তারা দেখেছেন। এ নিয়ে পুরো গ্রামবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তারা বন বিভাগের সাহায্য কামনা করছেন।জানা গেছে, বাংলাদেশে বর্তমানে যেসব সাপ দেখা যায় সেগুলোর মধ্যে রাসেল ভাইপার সবচেয়ে বিষাক্ত। এই সাপের কামড়ে শরীরের দংশিত অংশে বিষ ছড়িয়ে অঙ্গহানি, ক্রমাগত রক্তপাত, রক্ত জমাট বাঁধা, স্নায়ু বৈকল্য, চোখ ভারি হয়ে যাওয়া, পক্ষাঘাত, কিডনির ক্ষতিসহ বিভিন্ন ধরনের শারীরিক উপসর্গ দেখা দেয়।

এ বিষয়ে ভোলার বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক বলেন, রাসেল ভাইপার সাপ লোকালয়ে সাধারণত খুব কমই দেখা যায়। বাচ্চা দেওয়ার কারণে হয়তো ওই সাপটি লোকালয়ে চলে এসেছে। তবে সবাইকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এছাড়া কেউ এসব সাপ দেখলে মেরে না পেলে স্থানীয় বন বিভাগের কর্মকর্তাদের জানানোর অনুরোধ রইলো।♦

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019