শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৭:০২ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
মূমুর্স শিশুকে বাচাতে গিয়ে, গ্রেফতার হলেন শিশুর বাবা ছাত্রলীগ নেতা খান আবুল কালাম।

মূমুর্স শিশুকে বাচাতে গিয়ে, গ্রেফতার হলেন শিশুর বাবা ছাত্রলীগ নেতা খান আবুল কালাম।

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি

বরিশালের বাকেরগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতা আবুল কালাম খানকে তুচ্ছ ঘটনায় গ্রেফতার করে মিথ্যা অভিযোগে কোর্ট হাজতে প্রেরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সূত্রে জানা যায় ২৪ শে এপ্রিল রবিবার দুপুর আনুমানিক ১ঃ৩০সের দিকে পরিবারের সব সদস্য ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে চিকিৎসাধীন এমনতবস্থায় কালামের আরাই বসরের মাসুম বাচ্চা তাসকিন হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়াহয়।তখনও বাচ্চার মা ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে বাসায় স্যালাইন রত অবস্থায় ছিলো হঠাৎ বাচ্চাটি দুই বার বমি এবং দুইবার পাতলা পায়খানা করে, বাচ্চাটি বাসায় বিছানায় ঢলে পড়ে, বাচ্চার এ অবস্থা দেখে কিংকর্তব্য বিমূর্ত হয়ে তড়িঘড়ি করে বাচ্চাটিকে কাদের উপর নিয়ে দুপুরবেলা প্রচন্ড গরম উপেক্ষা করে, অন্যদিকে লকডাউন থাকার কারণে কোন গাড়ি না পেয়ে,২ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পৌঁছে তাড়াহুড়ো করে জরুরি বিভাগে ঢুকে পরেন বাচ্চা বাবা উপজেলা ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক খান আবুল কালাম । তখন কর্তব্যরত ডাক্তার মনিরুজ্জামান খানের কাছে গিয়ে বিনিত অনুরোধ করেন, বাচ্চাটিকে বাঁচান। কিন্তু কর্তব্যরত ডাক্তার বাচ্চাটিকে গুরুত্ব না দিয়ে হঠাৎ ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন আমার দিকে তাকান আমি মাক্স পড়া আপনার ম্যাস্ক কই, ম্যস্ক পরে আসেন নি কেন? আগে সেটা বলেন তারপর আপনার বাচ্চার ভর্তি নেবো কি নেবো না সেটা পরে দেখা যাবে। বাচ্চাটিকে অন্য এক মহিলার কাছে দিয়ে বাহির থেকে ম্যস্ক কিনে দ্রুত চিকিৎসা সেবা দেবার জন্য বিনীত অনুরোধ করেন। তখন ডাঃ মনিরুজ্জামান খান বাচ্চা টিকে ভর্তি নিতে অপরাগতা প্রকাশ করেন । এক পর্যায় ভর্তি নিতে না পারলে ক্যানোলা পরিয়ে দেবার জন্য বিনীত অনুরোধ করেন বাবা আবুল কালাম । কিন্তু তার কথায় কর্নপাত না করে নিজেকে নিয়ে ব্যস্থ হয়ে যান ডাক্তার । এহেন পরিস্থিতিতে বাধ্য হয়ে বাক বিতন্ডায় লিপ্ত হয়ে পরলে ঘটনার এক পর্যায় ডাঃ ক্ষিপ্ত হয়ে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে রুম থেকে বের করে দিতে চেষ্টা চালালে ঘটনাটি হাতাহাতিতে গড়ায়। পরবর্তীতে সেখানকার উপস্থিত সবাই ছুটে এলে। পরিস্থিতি, শান্ত হয়। এ সময়ে সেচ্ছাসেবী সংগঠনের দায়িত্বে থাকা বাকেরগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্র লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ দোলন সহ সেচ্ছাসেবী সংগঠনের লোকজন এসে বিস্তারিত শুনে ডাঃ কে বুঝাতে চেষ্টা করলেও তিনি কোন কথা শুনতে নারাজ। বাকেরগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসুদ আকোন ডাক্তার মনিরুজ্জামান কে একাধিক বার বুঝান তাতেও কোন কাজ হয়নি।
এবিষয়ে ডাক্তার মনিরুজ্জামান খান সংবাদ মাধ্যম কে জানান আমার সাথে আবুল কালাম খারাপ আচরণ করেছেন উপজেলা পঃপঃ কর্মকর্তার সাথে আলাপ করে থানায় মামলা করা হয়েছে। বাকেগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলাউদ্দিন মিলন সংবাদ মাধ্যম কে জানান মামলার আসামি আবুল কালাম কে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রণয়ন করা হয়েছ।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English