রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
মামুনুল হককে প্রধান আসামি করে নারায়ণগঞ্জে ৩ মামলা।

মামুনুল হককে প্রধান আসামি করে নারায়ণগঞ্জে ৩ মামলা।

আজকের ক্রাইম ডেক্স
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের রয়েল রিসোর্টে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে নারীসহ স্থানীয় জনতা অবরুদ্ধ করার ঘটনায় হেফাজত নেতাকর্মীদের সহিংসতার তিনদিন পর পৃথক তিনটি মামলা হয়েছে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে সোনারগাঁও থানায় দুই পুলিশ কর্মকর্তা বাদী হয়ে মামলা দুইটি দায়ের করেন। এতে মাওলানা মামুনুল হককে প্রধান আসামি করে এবং ৮৩ জনের নাম উল্লেখ করে ওই মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়া স্থানীয় এক সংবাদকর্মীকে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা মারধর ও লাঞ্ছিত করার ঘটনায় আরও একটি মামলা হয়েছে।
সোনারগাঁও থানার ওসি মো. হাফিজুর রহমান মামলার দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তিনটি মামলা হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে প্রধান করে ৫ থেকে থেকে ৬০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এ তিন মামলায় এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে তিনটি মামলারই এজাহারভুক্ত আসামি মোস্তফা রয়েছে। যিনি হেফাজতে ইসলামের একজন সক্রিয় সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ। মোস্তফাকে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের আদালতে পাঠায়।
মামুনুল হক ছাড়াও মামলায় অন্য আসামিরা হলেন- মাওলানা মহিউদ্দিন খান, মাওলানা ইকবাল হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, মোক্তার, নাসির প্রধান, এনায়েত উলাহ, ইব্রাহিম মুন্সি, মোস্তাফিজুর রহমান, নূরে ইয়াছিনসহ ৮৩ জনের নাম রয়েছে দুটি মামলায়।
সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান আরও জানান, হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় দায়েরকৃত তিন মামলার আসামিদের সিসিটিভির ফুটেজ দেখে শনাক্ত করে নাম ঠিকানা অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
এ ব্যাপারে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান সময় নিউজকে জানান, হেফাজত নেতা মামুনুল হকের নারীঘটিতকাণ্ডে ও হেফাজত নেতাদের তাণ্ডবের ঘটনায় তিনটি মামলা হয়েছে। পুলিশ সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।
তিনি বলেন, নাশকতা ও সহিংসতা সৃষ্টির ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English