রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালে শরীরে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে রোগী নিয়ে হাসপাতালে। স্থগিত নির্বাচনী এলাকায় বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররাই দায়িত্ব পালন করবেন। বরিশালের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক কাজী আজাদের মৃত্যুতে বানারীপাড়া প্রেস ক্লাবের শোক। রাতে কালবৈশাখী ঝড়ের আভাস। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের রোগমুক্তি কামনায় হেফাজতের ঢাকা মহানগর সভাপতি জুনায়েদ গ্রেফতার। পাত্তাই দিচ্ছে না কেউ ভয়ংকর করোনাকে। সিলেটের করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু !! ক্রমেই বাড়ছে করোনার সংক্রামন। বাবুগঞ্জে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল কালো বাজারে বিক্রির অভিযোগ। বাবুগঞ্জে গৃহবধুর লাশ হাসপাতালে রেখে পালাল স্বামী।
জগন্নাথপুরে সাবেক চেয়ারম্যানের জমিতে ঘর নির্মাণ নিয়ে উত্তেজনা। আজকের ক্রাইম-নিউজ

জগন্নাথপুরে সাবেক চেয়ারম্যানের জমিতে ঘর নির্মাণ নিয়ে উত্তেজনা। আজকের ক্রাইম-নিউজ

সিলেট প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হকের মালিকানা জমিতে প্রতিপক্ষের লোকজন ঘর নির্মাণ করা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
স্থানীয়রা জানান, মৌজা গন্ধর্বপুর, জেএল নং-২০৪, এসএ দাগ নং-৩৬২, হাল দাগ নং-৬৯৪ তে ৯৫ শতক জমি রয়েছে। এর মধ্যে খরিদা সূত্রে ৫০ শতক জমির মালিক হন সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক। তবে এ জমির মালিকানা নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক ও বিলাল মিয়ার লোকজনের মধ্যে বিরোধ ও মামালা-মোকদ্দমা চলছে।
এর মধ্যে সোমবার হঠাৎ করে বিরোধীয় জমিতে ছোট টিনসেড ঘর নির্মাণ করেন প্রতিপক্ষের বিলাল মিয়ার লোকজন। এ নিয়ে আবারো নতুন করে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক বলেন, জমি জবর দখলের জন্য ও নতুন করে সংঘর্ষের উদ্দেশ্যে আমার জমিতে ঘর নির্মাণ করেছে প্রতিপক্ষ বিলাল মিয়ার লোকজন। আমি একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে সংঘর্ষে জড়াতে পারি না। তাই আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে থানা পুলিশের সহায়তা চেয়েছি। তা না হলে ঘর নির্মাণকালে আমার লোকজন বাধা দিলে বড় ধরণের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতো। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষের বিলাল মিয়ার লোকজন জানান, আমরা মামলায় আদালতের রায় পেয়ে এখানে ঘর নির্মাণ করেছি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English