বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
যুবতী নারীসহ এক বিজিবি সদস্য পুলিশের হাতে আটক। আজকের ক্রাইম-নিউজ স্বামীকে ঘুম পাড়িয়ে ইচ্ছেমতো কোপাল নববধূ! আজকের ক্রাইম-নিউজ বরিশালের গৌরনদীতে সেরনিয়াবাত মঈন আবদুল্লাহর জন্য দোয়া মোনাজাত” বরিশালের পুজা মন্ডপে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর অনুদান সেরনিয়াবাত মঈন আব্দুল্লাহ বাংলাদেশ কৃষক লীগের কার্যকারি সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় আনন্দ শোভাযাত্রা এসআই আকবর গ্রেপ্তার? জোর গুঞ্জন! আজকের ক্রাইম-নিউজ ডিমলায় চকলেট দেবার কথা বলিয়া ৩য় শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষন। আজকের ক্রাইম-নিউজ বানারীপাড়ায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টাঃ লম্পটকে গণধোলাই শেষে পুলিশে সোপর্দ বগুড়ায় অদ্ভুত আকৃতির সেই শিশুটির মৃত্যু। আজকের ক্রাইম-নিউজ বানারীপাড়ায় বিদ্যুৎস্পর্শে ডক ইয়ার্ড মালিকের মর্মান্তিক মৃত্যু। আজকের ক্রাইম-নিউজ
কাল থেকে প্রতিদিন ৩ ঘণ্টা ইন্টারনেট সেবা বন্ধ! আজকের ক্রাইম-নিউজ

কাল থেকে প্রতিদিন ৩ ঘণ্টা ইন্টারনেট সেবা বন্ধ! আজকের ক্রাইম-নিউজ

ডেক্স প্রতিবেদক:: সারাদেশে আগামী রোববার (১৭ অক্টোবর) থেকে প্রতিদিন প্রায় তিন ঘণ্টা ইন্টারনেট ও কেব‌ল টিভি (ডিশ) সংযোগ বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে আইএসপিএবি ও কোয়াব। ঝুলন্ত কেব্‌ল (তার) অপসারণের প্রতিবাদে তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।
এরইমধ্যে বিভিন্ন এলাকার ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো গ্রাহকদের মুঠোফোনে এসএমএস ও ই-মেইলের মাধ্যমে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

যেমন- গ্রাহকদের ই-মেইল পাঠিয়ে লিংক-৩ টেকনোলজি জানিয়েছে যে, ১৮ অক্টোবর থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকবে।

সত্যিই যদি কেবল অপারেটরেরা এ ধর্মঘট সফল করেন, তাহলে বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম স্থবির হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বিশেষ করে করোনাকালে অনেক কিছুই এখন ইন্টারনেটের ওপর পুরোপুরি নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। শুধু অর্থনীতি নয়, শিক্ষাসহ বিভিন্ন দাপ্তরিক কার্যক্রমও আটকে পড়ার শঙ্কা রয়েছে।

দেশের দুই শেয়ারবাজারের লেনদেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক এমনকি বাণিজ্যিক ব্যাংকের কার্যক্রমও হতে পারে বাধাগ্রস্ত। নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট না পেলে বন্ধ থাকবে এটিএম সেবাও। এতে শত শত কোটি টাকা লোকসানের আশঙ্কা করছেন প্রযুক্তিবিদরা।

এদিকে গত ১০ আগস্ট ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ফজলে নূর তাপস, ডিসেম্বরের মধ্যে দক্ষিণ সিটিকে তারের জঞ্জালমুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। যার অংশ হিসেবে ঢাকা দক্ষিণের বিভিন্ন এলাকা থেকে ঝুলে থাকা বাড়তি তার কেটে ফেলার উদ্যোগ নেয়া হয়। এর অংশ হিসেবে অনেক জায়গায় তার কেটে ফেলা হচ্ছে।

এ বিষয়ে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)- এর পরিচালক নাজমুল করিম ভূঁইয়া বলেন, আমরা ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়ার পক্ষে নই। তবে সিটি কর্পোরেশন বলছে যে বিকল্প ব্যবস্থা আমাদের করে নিতে হবে। তবে ঢাকা শহরে এই ধরণের কোন বিকল্প ব্যবস্থা নেই। যার কারণে এই প্রতিবাদ।

এদিকে বাসাবো এলাকার বাসিন্দা নাজমুস সাকিব জানান, তিনি একজন চাকরিজীবী। সেই সঙ্গে তার দুটি স্কুল পড়ুয়া সন্তান রয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে তাদের স্কুলের ক্লাস চলছে অনলাইনে। আর সেই সঙ্গে নিজেকেও বাড়িতে থেকে অফিস করতে হয়। ইন্টারনেট সংযোগ না থাকলে মহাবিপদে পড়তে পারেন তিনি।

তবে ঢাকা উত্তরের মেয়র সেবাদাতাদের সঙ্গে আলোচনা করে একেকটি এলাকা বা সড়ক নির্ধারণ করে পর্যায়ক্রমে সেখানকার ঝুলন্ত তার অপসারণ করছে। ইতোমধ্যে উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের কয়েকটি সড়ক ও গুলশান অ্যাভিনিউ সড়কের দুই পাশের ঝুলন্ত কেব্‌ল অপসারণ করা হয়েছে।

এদিকে, ১৭ অক্টোবরের মধ্যে চলমান সমস্যা সমাধানে সিটি কর্পোরেশনকে সময়সীমা বেধে দিয়েছেন, ইন্টারনেট ও ডিস সেবা প্রদানকারী দুই সংগঠনের নেতারা।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Design By Rana