২৩ Jul ২০২৪, ০৫:১৫ অপরাহ্ন, ১৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি, মঙ্গলবার, ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
আগৈলঝাড়ায় স্বামীর পরকীয়া প্রেমের ও যৌতুকের বলি দুই সন্তানের জননী

আগৈলঝাড়ায় স্বামীর পরকীয়া প্রেমের ও যৌতুকের বলি দুই সন্তানের জননী

বি এম মনির হোসেনঃ-

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার রাহুতপাড়া গ্রামে স্বামীর পরকীয়া প্রেমের বাঁধা দেয়া ও যৌতুকের দাবিতে দুই পুত্র সন্তানের জননী রিবিকা বালাকে (৩৫) হত্যা করা হয়েছে বলে নিহতর ভাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ খবর পেয়ে ৯ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে। স্বামীর পরিবারের দাবি আত্মহত্যা! মৃত রিবিকা বালার বড় ভাই পাশ্ববর্তী উপজেলার ডাসার থানার নবগ্রাম এলাকার উপেন্দ্র নাথ বাড়ৈর ছেলে সুবির বাড়ৈ অভিযোগে বলেন, তার বোনজামাতা আগৈলঝাড়ার রাহুতপাড়া গ্রামের গৌরাঙ্গ বালার ছেলে সঞ্জিত বালা পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পরে। প্রায়ই সে ওই মেয়ের সাথে ফোনে কথা বলতো। এনিয়ে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহ চলে আসছিলো। তিনি আরও অভিযোগ করেন, পরকীয়ার পাশাপাশি যৌতুকের দাবিতে সঞ্জিত বালা প্রায়ই তার বোনকে শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিলো। তাদের দাম্পত্য জীবনে শৈশব বালা(১৩) এবং শুভ বালা (৫) নামের দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে।স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সুবির বাড়ৈ জানান, সোমবার দিবাগত রাতে তার বোনের সাথে স্বামী সঞ্জিতের তুমুল ঝগড়া হয়। তাদের ধারনা বাগবিতন্ডার একপর্যায়ে সঞ্জিতের শারিরিক নির্যাতনে তার বোন রিবিকা মারা গেছে। পরবর্তীতে সঞ্জিত তার পরিবারের সদস্যদের সহায়তায় লাশ বাড়ির পাশ্ববর্তী বাগানের একটি গাব গাছের সাথে ঝুলিয়ে রেখে এলাকায় আত্মহত্যার কথা রটিয়ে দিয়েছে। ঘটনার পর থেকেই সঞ্জিত বালা আত্মগোপন করেছেন বলেও তিনি জানান। বোনের মৃত্যু হত্যা দাবি করে তিনি এ ঘটনায় মামলা করবেন বলেও জানান। অভিযুক্ত সঞ্জিত বালা আত্মগোপনে থাকায় তার কোন বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। আগৈলঝাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলম চাঁদ আজকের ক্রাইম নিউজ এর প্রতিনিধি বি এম মনির হোসেনকে বলেন, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে ৯ জুলাই মঙ্গলবার বেলা বারোটার দিকে রিবিকা বালার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে এসআই শফিকুল ইসলাম।এ ঘটনায় থানায় প্রাথমিকভাবে ইউডি মামলা দায়েরের পর লাশের ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে। পুরো বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে জানিয়ে ওসি আরও বলেন, এ ঘটনায় মৃতের বাবার পরিবার থেকে এখনও থানায় লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। লিখিত অভিযোগ ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019