বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:৫২ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
সন্ধ্যার পর পাড়া-মহল্লার রাস্তায় কোনো শিক্ষার্থী পেলেই আইনি ব্যবস্থা। আজকের ক্রাইম-নিউজ শিশু বিক্রির টাকা ভাগাভাগি করে নিলেন সুদ কারবারী। আজকের ক্রাইম-নিউজ বিএনপির সমাবেশ শেষে বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার। আজকের ক্রাইম-নিউজ রাজাপুরে ৫০০গ্রাম গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী সোহাগ বিবি পুলিশের হাতে আটক। আজকের ক্রাইম-নিউজ তালতলীতে বকেয়া বেতন ভাতার দাবিতে গ্রাম পুলিশের অবস্থান কর্মসূচি। আজকের ক্রাইম-নিউজ মুরগির মাংস খেয়ে ৫ জনের মৃত্যু অসুস্থ অনেক। আজকের ক্রাইম-নিউজ ২০৫০ সাল নাগাদ প্রতি চারজনের একজন শ্রবণ সমস্যায় ভুগবে। আজকের ক্রাইম-নিউজ স্ত্রীর পরকীয়ায় আসক্তির অভিযোগে স্বামীর সংবাদ সম্মেলন। আজকের ক্রাইম-নিউজ তেতুলিয়ায় বিদ্যুৎষ্পষ্ট রংমিস্ত্রির মত্যু। আজকের ক্রাইম-নিউজ ভাসমান হাসপাতাল ‘জীবন তরী’ ঝালকাঠি ডিসি পার্কে সুগন্ধা নদীর তীরে। আজকের ক্রাইম-নিউজ
জীবননগর পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর জয়লাভ। আজকের ক্রাইম-নিউজ

জীবননগর পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর জয়লাভ। আজকের ক্রাইম-নিউজ

এম.এ.আর.নয়ন, স্টাফ রিপোর্টার: চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন রফিকুল ইসলাম রফিক। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রফিক প্রথমবারের মতো জীবননগর পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হলেন। এর আগে কখনো তিনি মেয়র পদে নির্বাচন করেননি। তবে বেশ কয়েকবার তিনি কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে তিনি পেয়েছেন ১৩ হাজার ৯ শত ১৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী শাজাহান কবির পেয়েছেন ৭ শত ৬৬ ভোট, আর ইসলামী আন্দোলনের মনোনীত প্রার্থী খোকন হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ২ শত ৫৩ ভোট। বাতিল হয়েছে ৩ শত ৪৪ ভোট।

যদিও বিএনপি’র প্রার্থী সকাল সাড়ে ৯টার সময় সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। এর আগে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে পৌরশহরের ৯টি ওয়ার্ডের ১০টি কেন্দ্রে ৬০টি কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বড়ধরনের কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটলেও বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। জীবননগর পৌরসভায় মোট ভোটার হলো ২০ হাজার ৮ শত ২৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ১ শত ৩৩ জন, আর মহিলা ভোটার ১০ হাজার ৬ শত ৯৪ জন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English