রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালে মহিলা আ’লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে কেক কাটলেন মেয়র সাদিক। আজকের ক্রাইম-নিউজ মানুষের ডিজিটাল সুরক্ষার জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন: তথ্যমন্ত্রী। আজকের ক্রাইম-নিউজ বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণকে ইতিহাস বললেন মির্জা ফখরুল। আজকের ক্রাইম-নিউজ পঞ্চম-দশম-দ্বাদশে প্রতিদিন ক্লাস, বাকিদের সপ্তাহে একদিন। আজকের ক্রাইম-নিউজ পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আজকের ক্রাইম-নিউজ প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বিএনপির দুই নেতা। আজকের ক্রাইম-নিউজ স্কুল-কলেজে রমজানেও ক্লাস চলবে: শিক্ষামন্ত্রী। আজকের ক্রাইম-নিউজ অবশেষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার তারিখ ঘোষণা। আজকের ক্রাইম-নিউজ মসজিদে আজান বন্ধ করে দিল ইসরায়েল। আজকের ক্রাইম-নিউজ প্রেম করার অপরাধে মেয়েকে কুপিয়ে মারলেন মা। আজকের ক্রাইম নিউজ
লিবিয়া ইস্যুতে মিশরকে আবার হুঁশিয়ারি দিল তুরস্ক। আজকের ক্রাইম-নিউজ

লিবিয়া ইস্যুতে মিশরকে আবার হুঁশিয়ারি দিল তুরস্ক। আজকের ক্রাইম-নিউজ

অনলাইন ডেস্ক

মিশরকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তুরস্ক বলেছে, কায়রো যদি লিবিয়ায় সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যায় তাহলে তারা বিপজ্জনক ঝুঁকির মুখে পড়বে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের নিরাপত্তা উপদেষ্টা ইব্রাহিম কালিন বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এই হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

মিশরের জাতীয় সংসদ লিবিয়ায় সম্ভাব্য সামরিক হস্তক্ষেপের ব্যাপারে জেনারেল দেশটির প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আস-সিসিকে সবুজ সংকেত দেয়ার পর ইব্রাহিম কালিন ওই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

তিনি বলেন, আফ্রিকার তেলসমৃদ্ধ দেশ লিবিয়ায় যদি মিশর সেনা মোতায়েনের চেষ্টা করে তাহলে যুদ্ধবিধ্বস্ত লিবিয়ায় শান্তি প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টা ব্যাহত হবে এবং তা কায়রোর জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ হবে।

তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি এটি হবে মিশরের জন্য বিপজ্জনক সামরিক ঝুঁকি।
২০১১ সালে লিবিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো বাহিনীর সামরিক অভিযানে দেশটির নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফি নিহত হওয়ার পর থেকে লিবিয়া মারাত্মক গোলযোগের মধ্যে রয়েছে। এ অবস্থায় ত্রিপোলিভিত্তিক জাতীয় সরকারের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে তুরস্ক। অন্যদিকে, বিদ্রোহী নেতা জেনারেল খলিফা হাফতারের পক্ষ নিয়েছে মিশর।

লিবিয়া ইস্যুতে বেশ কিছুদিন ধরে অনেকটা মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে মিশর ও তুরস্ক। মিশর এখন লিবিয়ায় সামরিক হস্তক্ষেপ করার কথা বলছে। এতে তুরস্ক ও মিশরের মধ্যে সামরিক সংঘাতের আশঙ্কা বেড়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English