সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০২:০৩ অপরাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
বিজেপির ‘বন্ধু’ হওয়ায় বাইডেন প্রশাসন থেকে বাদ! আজকের ক্রাইম-নিউজ কথায় নয় কাজে দক্ষ হতে হবে, এসপিকে হাইকোর্ট। আজকের ক্রাইম-নিউজ একটি লেপের জন্য রাস্তায় ঘোরেন ১৯৫২ সালের ম্যাট্রিক পাস খোদেজা। আজকের ক্রাইম-নিউজ বানারীপাড়ায় গৃহকর্মীকে ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের পুত্র সুমন সরদার গ্রেফতার। আজকের ক্রাইম-নিউজ রাজাপুরে ১২৫ পিছ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ ডিবি পুলিশের হাতে আটক। আজকের ক্রাইম-নিউজ মা-বাবা মারা গেছেন, ১০ বছরের শিশুকে ট্রেনে ফেলে গেলেন ভাই-ভাবি! আজকের ক্রাইম-নিউজ ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে দুর্ব্যবহার : হাইকোর্টে ক্ষমা চেয়েছেন এসপি। আজকের ক্রাইম-নিউজ আ. লীগ মেয়র প্রার্থীর জন্য ভোট চাইতে চট্টগ্রামে একঝাঁক তারকা। আজকের ক্রাইম-নিউজ করোনার টিকা, নাকি মুরগির টিকা গ্যারান্টি নেই: জাফরুল্লাহ। আজকের ক্রাইম-নিউজ ঝালকাঠিতে স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া স্বামীর ২য় বিবাহ, তথ্য সংগ্রহ করার সময় সাংবাদিকের মোবাইল ছিনিয়ে নেয় কৃষি কর্মকর্তা। আজকের ক্রাইম-নিউজ
ঝালকাঠি রাজাপুরে জরাজীর্ণ বসতঘরে বৃদ্ধ-বৃদ্ধার মানবেতর বসবাস

ঝালকাঠি রাজাপুরে জরাজীর্ণ বসতঘরে বৃদ্ধ-বৃদ্ধার মানবেতর বসবাস

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলায় সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের গাজী বাড়ি এলাকায় জরাজীর্ণ বসতঘরে মানবেতর জীবন-যাপন করছে অসহায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধার পরিবার। ভাঙা ঝুপড়ি ঘরে একটু বৃষ্টি হলেই পানির ফোটায় বিছানা ভিজে যায়। ভেজা বিছানায় বৃদ্ধা স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন বৃদ্ধ আমির হোসেন।
জানা গেছে, উপজেলার মৃত আলি আজিম খাঁ এর ছেলে আমির হোসেন(৭৫) তার বৃদ্ধা স্ত্রী সহ পরিবার একটি মোটামুটি ভালো আশ্রয়স্থলের অভাবে বহু বছর ধরে জরাজীর্ণ বসতঘরে মানবেতর জীবন-যাপন করে আসছেন।
বৃদ্ধ আমির হোসেন একজন অসহায় লোক। কোন ভাবে মানুষের সহযোগীতা নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। বসত ভিটা ছাড়া তার নিজের আর কোন জমি নেই। তার ছেলে মেয়ে তারা সবাই যে যার সংসার নিয়ে বিভিন্ন স্থানে বসবাস করে। বর্তমানে বৃদ্ধা আমির হোসেনের বসত ঘরখানা খুবই জরাজীর্ণ অবস্থায় আছে। বসত ঘরের আংশিক ভাঙা পুরাতন টিন ও পলিথিন দিয়ে ঢাকা। বর্ষার সময় ঘরের ছাউনি থেকে পানি পড়ে বাশঁ, খুটি, বিছানাসহ সব কিছু ভিজে নষ্ট হয়ে যায়। একটু বন্যা হলেই ঘরটি পরে যাওয়ার আশস্কা রয়েছে।
ঝড় বন্যা হলে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিতে হয় বৃদ্ধ আমির হোসেন ও তার বৃদ্ধা স্ত্রীর। এ অবস্থায় বৃদ্ধ ও বৃদ্ধার খুবই মানবেতর ভাবে জরাজীর্ণ বসতঘরে জীবন-যাপন করছেন।
বৃদ্ধ আমির হোসেন জানান, বর্ষা কালে ঘরে পানি পড়ে বলে সারা রাত ঘরের এক কোনায় জেগে রাত কাটাতে হয় আমাদের। আর এই ভেজা স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে বেশি করে অসুস্থ করে দিচ্ছে আমাদের। আর্থিক অবস্থা ভাল না হওয়ায় ঠিক মত ঔষুধ কেনা হয় না আমাদের। বর্তমানে ভাঙা ঝুপড়ি নিয়ে বেশ চিন্তিত। কারন রোদ বৃষ্টি কোন মৌসুমেই ঠিক মত থাকতে পারি না। আশ্রয়স্থল যদি ঠিক না থাকে তাহলে দিন রাত পার করা খুব মুসকিল। জীবন-যাপন করার জন্য মোটামুটি ভালো আশ্রয়স্থলের একটি ঘর আমাদের খুব প্রয়োজন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English