রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৪:২৩ পূর্বাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
সর্বশেষ সংবাদ :
ঝালকাঠিতে শর্টগান উঁচিয়ে শোডাউন, শহরজুড়ে আতংক। আজকের ক্রাইম-নিউজ

ঝালকাঠিতে শর্টগান উঁচিয়ে শোডাউন, শহরজুড়ে আতংক। আজকের ক্রাইম-নিউজ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:: ঝালকাঠির আলোচিত ব্যবসায়ী ঢাকা উত্তরের শ্রমিকলীগ নেতা শামিম আহম্মেদ এবার অর্ধশত মোটরসাইকেল নিয়ে হাতে শর্টগান উঁচিয়ে শহরে শোডাউন দিয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী কামাল শরিফ সমর্থকদের ধাওয়া করার ঘটনায় শহরজুড়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে চরম আতংক দেখা দিয়েছে। রবিবার সন্ধ্যার পরে অর্ধশত মোটরসাইকেলযোগে হাতে শর্টগান নিয়ে ঝালকাঠি পৌর-শহরে নৌকার শ্লোগান দিয়ে শোডাউন দিতে থাকেন,আলোচিত জর্দ্দা ব্যবসায়ী শামিম আহম্মেদ। শোডাউনের একপর্যায় শহরের সাধনার মোড় ডাক্তার পট্টি এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী কামাল শরিফের সমর্থকদের শর্টগান উঁচিয়ে গুলি করার ভঙিতে ভিলেন স্টাইলে ধাওয়া করে। এ ঘটনায় শহরজুড়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

এ বিষয় কাউন্সিলর প্রার্থী কামাল শরিফ অভিযোগ করেন, অস্ত্রবাজ শামিম আহম্মেদ ও মাদক সম্রাট বেল্লালের ভাই আমার প্রাতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মাহবুবুজ্জামান স্বপন আমার কর্মী সমর্থকদের প্রকাশ্যে অর্ধশত মোটরসাইকেলে শর্টগান উঁচিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধাওয়া করে বিভিন্ন রকমের হুমকিদেয়। ইতিমধ্যে কামাল শরিফের কর্মী সমর্থকদের অস্ত্রনিয়ে ধাওয়া করার ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়াও কামাল শরিফের বিরুদ্ধে নিলনকশার বেশ কিছু অডিও ক্লিপ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিনি পুলিশ কে তাৎক্ষণিক জানিয়েছেন এবং লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানান।

উল্লেখ্য ইতিপূর্বেও শহরে গভীর রাতে শর্টগানের গুলি ছোঁড়ে ব্যবসায়ী শামিম আহম্মেদ বিতর্কে জড়িয়েছেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তিনি ইতিপূর্বে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কালো তালিকায় থেকে বেশ কয়েক বছর আত্মগোপনে ছিলেন। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক কেলেংকারির বহু অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে ৯৯ জর্দ্দার কোম্পানির এমডি ও ঢাকা উত্তরের শ্রমিকলীগ নেতা শামিম আহম্মেদ শোডাউনের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, তিনি ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কয়েকজন কাউন্সিলর প্রার্থী নিয়ে অর্ধশত মোটরসাইকেলযোগে নৌকার প্রার্থী মো. লিয়াকত আলী তালুকদারের সমর্থনে শহরে শোডাউন দিয়ে মেয়র প্রার্থীর বাসার সামনে যায়। সেখান থেকে পুনরায় ফেরার পথে ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মাহবুবুজ্জামান স্বপন আমাদের মহড়ার ভেতরে ঢুকে পড়ে, যা আমি দেখিনি। হঠাৎ শহরের সাধনার মোড় ডাক্তারপট্টি এলাকায় পৌঁছালে অপরদিকে থেকে বেশকিছু মোটরসাইকেল মহড়া দিয়ে আমাদের দিকে এগিয়ে আসে। তখন আমি মনে করি নৌকা বিরোধী প্রার্থী আফলাজের লোকজন হতে পারে তাই আমি অত্মরক্ষার জন্য শর্টগান বের করেছি। পড়ে যখন দেখেছি কাউন্সিলর প্রার্থী কামালের ভাই ও লোকজন দেখেছি তখন যে যারমত চলে গেছি। তারা হয়তো কাউন্সিলর প্রার্থ স্বপনকে দেখে ভুল বুঝতে পারে এখানে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি সদর থানা পুলিশের ওসি মো. খলিলুর রহমান বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। তবে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। অন্য কোন প্রশ্লের উত্তর না দিয়ে কৌশলে ব্যস্ততার অজুহাত দেখিয়ে তিনি ফোন কেটে দেন।’

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English