১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১৮ পূর্বাহ্ন, ৩রা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি, শনিবার, ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
ঈদের দিন স্ত্রী-সন্তানকে মাংস কিনে খাওয়াতে না পারায় চিরকুট লিখে আত্মহত্যা বানারীপাড়ায় সাকুরা পরিবহনের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান আগৈলঝাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলম চাঁদ বৈসাবির রঙ লেগেছে পাহাড়ে হ্রদের জলে ভাসানো হলো রঙ-বেরঙের ফুল দর্শনায় ঈদের দিন মোটরসাইকেলের পাল্লাপাল্লিতে কিশোরের মৃত্যু ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই ইসরায়েলে ইরানের হামলা রাজধানীতে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে পাহাড়ি প্রাণের উৎসব বৈসাবি পালিত এলাকায় মসজিদ ছিল না, জমি কিনে মসজিদ বানালেন সবজি বিক্রেতা ঈদের দিন পাহাড়ে ঘুরতে এসে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর বিমান দুর্ঘটনা, রানওয়েতে পুড়ে মৃত্যু হয় ৫৮৩ জনের
কেএমপি সদর থানা পুলিশের অভিযানে কিশোরগ্যাং চক্রের ৩ সদস্য মাদকসহ গ্রেপ্তার

কেএমপি সদর থানা পুলিশের অভিযানে কিশোরগ্যাং চক্রের ৩ সদস্য মাদকসহ গ্রেপ্তার

খুলনা থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক ইমরান জামান কাজল।

খুলনা মহানগর এর প্রতিটি রাস্তায় অলিতে গলিতে আনাচে-কানাচে বেড়েই চলছে কিশোর গ্যাংচক্রের উৎপাত। এ সকল কিশোর গ্যাং চক্রের আয়ের সবচেয়ে বড় উৎস হলো মাদক বিক্রি। এ সকল গ্যাংচক্র বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত হতে মাদক সংগ্রহ করে, এবং উক্ত মাদকসমূহ বিভিন্ন ছোট ছোট গ্রুপের মধ্যে এলাকাভিত্তিকভাবে বিভিন্ন ছোট কিশোর গ্যাংচক্র মধ্যে এজেন্ট ভিত্তিতে বিতরণ করে উক্ত মাদক সমূহ কে বিক্রয়ের ব্যবস্থা করে।

বিভিন্ন সময় দেখা যায় যে উক্ত মাদকদ্রব্য বিক্রয়ের টাকার ভাগাভাগি কেন্দ্র করে, প্রায়ঃসী এ সকল গ্যাংচক্র সদস্যদের মধ্যে হাতাহাতি ও মারামারি হয়ে থাকে। এবং পরবর্তীতে এ মারামারি অনেক বড় আকারের রূপ ধারণ করে।

এ ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে এলাকার স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী, মোহাম্মদ ওবায়দুল কাদের (৪৮),পেশায় একদম গভমেন্ট চাকরিজীবী, তার একমাত্র ছেলে এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র৷ তিনি আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদককে জানাই যে, কিছুদিন পূর্বে আমার ছেলের সঙ্গে এই গ্যাংচক্রের কোন এক সদস্যদের সঙ্গে ঝামেলা হয়। যার ফলে সৃষ্টি হাতাহাতি এবং পরবর্তীতে এই সমস্যা অনেক বড় ঝামেলার আকার ধারণ করে।এ সকল কিশোর গ্যাংচক্রের মূল কাজ হল এলাকার প্রতিটি পথচারী মেয়েদেরকে বিরক্ত করা, স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে মাদক বিক্রি করা। ছোট ছোট ব্যাপারকে কেন্দ্র করে অনেক বড় ধরনের সমস্যা সৃষ্টি করা। অন্ধকার রাস্তায় মানুষের মালামাল চুরি ও ছিনতাই করা। এবং হয় কথায় নয় কথায় তারা বিভিন্ন ধরনের দেশীয় অস্ত্র বের করে প্রদর্শন করা ও মানুষকে হুমকি দেওয়ার সাথে সাথে মারামারি বিভিন্ন গ্যাঞ্জাম ফাসাদের সময়ের সকল দেশের অস্ত্র ব্যবহার করে মানুষের অঙ্গহানি করা।

কেএমপি’র খুলনা থানা পুলিশের অভিযানে কিশোর গ্যাং নুর আজিম গ্রুপের ০৩ সদস্যকে ২৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ০১ কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার:

আজ ০১ এপ্রিল ২০২৪ খ্রিঃ রাত ০২.৫০ ঘটিকায় খুলনা সদর থানা পুলিশ থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান ডিউটি করাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে দক্ষিণ টুটপাড়া সার্কুলার রোডস্থ ৮/১ নং বাড়ির নিচতলা হতে মাদক কারবারি

০১) মোঃ জিকো খান@জিকু (৩৬), পিতা-মোঃ শাহজাহান@ শানু মহুরী, সাং-হোল্ডিং নং-৮/১, ওয়েস্ট সার্কুলার রোড, মহীর বাড়ীর মোড়, কাতার ভবনের পাশে, থানা- খুলনা সদর, জেলা-খুলনাকে ১৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও একই স্থান থেকে মাদক কারবারি

০২) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান হারিছ (৪০), পিতা-মোঃ শাহজাহান@ শানু মহুরী, সাং- হোল্ডিং নং-৮/১, ওয়েস্ট সার্কুলার রোড, মহীর বাড়ীর মোড়, কাতার ভবনের পাশে, থানা- খুলনা সদর, জেলা-খুলনাকে ০১ কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজা এবং মাদক কারবারি

০৩) মোসাঃ ফাতেমা আক্তার(২৩), পিতা-মোঃ গোলদার মোড়ল, সাং-খাজুরা (খাজুরা লকপুর বাজারের পার্শ্বে), থানা- ফকিরহাট, জেলা-বাগেরহাট, এপি সাং-হোল্ডিং নং-৮/১, ওয়েস্ট সার্কুলার রোড, মহীর বাড়ীর মোড়, কাতার ভবনের পাশে, থানা-খুলনা সদর, জেলা-খুলনাকে ১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

উক্ত গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারিরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, তারা নিয়মিত মাদকদ্রব্য গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয় করে থাকে। এ সংক্রান্তে খুলনা সদর থানার মামলা নং-৩, তারিখ-০১/০৪/২০২৪ খ্রিঃ, ধারা-২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(১) সারণির ১০(ক)/ ১৯(ক)/৪১ রুজু করা হয়েছে।

আজ সকাল ১২ঃ০০ ঘটিকায় উক্ত আসামিদেরকে খুলনা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে আদালতে বিচারিক কার্যক্রমের জন্য উপস্থিত করা হবে। সকল আসামিদের থেকে প্রাপ্ত তথ্য মতে খুলনা সদর থানা পুলিশের এ ধরনের কিশোর গ্যাংচক্র সহ মাদক বিক্রি চক্রের মূল হোতাদেরকে আইনের আওতায় আনার জন্য খুলনা মেট্রোপলিটন খুলনা সর্বদা তৎপর থাকবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019