২৬ Jun ২০২৪, ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন, ১৯শে জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি, বুধবার, ১৩ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
ডিসি, ইউএনওকে সম্মানি দেওয়ার কথা বলে প্রবেশপত্র আটকে রেখেছেন অধ্যক্ষ পরীমণির সঙ্গে রাত্রীযাপন: বাধ্যতামূলক অবসরে সেই পুলিশ কর্মকর্তা বানারীপাড়ায় শিশু বলাৎকার চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া সেই বিএনপি নেতা বহিস্কার মামুনুল হকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ঘোড়াঘাটে ২০ ভায়াল এন্টিভিনম মজুদ, চাহিদা ৪০ ভায়াল সিলেটে ফের ভারি বৃষ্টিপাতের আভাস দর্শনার লিখনের চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যু চুয়াডাঙ্গায় পিতাকে দাওয়াতে পাঠিয়ে তালা ভেঙ্গে ৯ লাখ টাকা চুরি,পরে পুত্র গ্রেফতার ডিমলায় পাট চাষিদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত বিরামপুরে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ
জেএসসি এক স্কুলছাত্রী ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় বখাটেরা স্কুল ছাত্রীর চাচা ও ভাইকে মারপিট করে আহত করেছে।

জেএসসি এক স্কুলছাত্রী ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় বখাটেরা স্কুল ছাত্রীর চাচা ও ভাইকে মারপিট করে আহত করেছে।

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে জেএসসি এক স্কুলছাত্রী ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় বখাটেরা স্কুল ছাত্রীর চাচা ও ভাইকে মারপিট করে আহত করেছে।
এঘটনায় প্রতিবাদ করতে গেলে ওই এলাকার আব্দুল মোতালেবের ছেলে মোঃ ইয়ামিন শেখসহ ১০/১২জন বখাটে তাদেরকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। গতকাল শনিবার বেলা ১২টার সময় উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের মেঘুল্লাহ গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। আহত স্কুলছাত্রীর ভাই হাফিজুর রহমান (৩০) ও চাচা আব্দুল ব্যাপারীকে (৪০) কে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিল্লাতুনেচ্ছা মজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ইভটিজিং এর শিকার মরিয়ম সোরহাব আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের জেএসসি পরীক্ষার্থী জানান, দীর্ঘদিন ধরে মোঃ ইয়ামিন শেখ আমাকে ইভটিজিং করে আসছে। গত শুক্রবার বিকালে আমাকে ইভটিজিং করলে আমি বাড়িতে এসে বলি।
ওই শিক্ষার্থীর ভাই আহত হাফিজুর রহমান জানান, স্কুলে যাতায়াত করার সময় আমার বোনকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো। আমি ও আমার চাচা আব্দুল ব্যাপারী ইয়ামিন শেখের বাবার কাছে বলতে গেলে আজুগড়া জামতৈল আলমাছ মেম্বরের বাড়ীর সামনে ইয়ামিন, আলমাজ, সুমন, হানিফ, ইয়াকুব, ইছাসিন, আলমগীর, জিহাদ, মোতালেব, রজমান, শরীফসহ ৬/৭জন দেশীয় অস্ত্র রামদা, ছুরি দিয়ে অর্তকিতভাবে হামলা করে। পরে আমাদের চিৎকারে এলাকাবাসী এসে আমাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিল্লাতুনেচ্ছা মজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এসময় সোহেল, সোহাগ, দেলবার, আব্দুল, সাত্তারকেও মারপিট করে আহত করে।
এ ব্যাপারে বেলকুচি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। ঘটনাস্থ পুলিশ পরিদর্শন করেছে। কোন অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হবে। এ বিষয়ে আহত ওই শিক্ষার্থীর চাচাতো ভাই আব্দুল হালিম জানান, এ ব্যাপারে বেলকুচি থানায় মামলা প্রস্তুতি চলছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019