২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:০৮ অপরাহ্ন, ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি, রবিবার, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
ঝালকাঠিতে বীর মুক্তিযোদ্ধার গম চাষে নজর কেড়েছে তরুণ উদ্যোক্তাদের বাবুগঞ্জে আশার পক্ষ থেকে চিৎিসা সহায়তা প্রদান এসিল্যান্ড পরিচয়ে ব্যবসায়ীদের কাছে টাকা দাবি বরিশালে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রীয় পদক পাচ্ছেন কেএমপি’র তিন পুলিশ কর্মকর্তা ফেসবুকে ‘বলার ছিল অনেক কিছু’ লিখে ফাঁস দিল এসএসসি পরীক্ষার্থী বানারীপাড়ায় অবসরপ্রাপ্ত পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মকর্তা আব্দুল মতিন চৌধুরীর ইন্তেকাল বানারীপাড়ায় বন্দর মডেল স্কুলে তিনদিন ব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত শিক্ষক-কর্মচারী কো-অপরেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ এর ১৭তম বার্ষিক সাধারণ সভা আগৈলঝাড়ায় অনুষ্ঠিত মুজিব”একটি জাতির রুপকার প্রদর্শিত হলো বরিশালের গৌরনদী
চলচ্চিত্র প্রযোজক ও ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের গুলশানের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে মিনি বারের সন্ধান পেয়েছেন।

চলচ্চিত্র প্রযোজক ও ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের গুলশানের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে মিনি বারের সন্ধান পেয়েছেন।

চলচ্চিত্র প্রযোজক ও ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের গুলশানের একটি বাসায় অভিযান চালিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। বাসাটির ছাদে মিনি বারের সন্ধান পেয়েছেন অভিযানকারীরা।

একই সঙ্গে বাসার ভেতর থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, সীসার উপকরণ ও ক্যাসিনোর সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়েছে। এছাড়াও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই বাসার দুই কর্মচারীকে আটক করেছেন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

রোববার (২৭ অক্টোবর) বিকেল সাড়ের ৪টার দিকে গুলশান-২-এ আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের মালিকানাধীন ৫৭ নম্বর রোডের ১১/এ নম্বর বাসায় অভিযান চালায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।

বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে এ খবর নিশ্চিত করেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক খুরশিদ আলম।

অভিযানকালে তিনি জানান, আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের বাসার ছাদে মিনি বার পাওয়া গেছে। এছাড়াও তার বাসার ভেতরে বিপুল পরিমাণ ক্যাসিনোর সরঞ্জামাদি, বিদেশি মদ ও সীসার উপকরণ পাওয়া গেছে। তবে অভিযানকালে আজিজ মোহাম্মদ ভাই বাসায় ছিলেন না বলে জানান খুরশিদ আলম।

অভিযান শেষে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ ফজলুর রহমান বলেন, গুলশান ৫৭ নম্বর রোডের ১১/এ নম্বর বাসাটি আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের নামে। তবে বাসাটির দেখাশোনা করতেন তার ভাই ও বোন। ভবনের চার নম্বর ফ্লোরে এই ফ্ল্যাটটি।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে এখানে আমরা বিপুল পরিমাণে বিদেশি মদ, সীসার উপকরণ ও ক্যাসিনো সরঞ্জামাদি জব্দ করেছি। এছাড়াও নবীন ও পারভেজ নামে বাসার দুই কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছি।

প্রসঙ্গত, ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের পরিবার ভারতের গুজরাট থেকে বাংলাদেশে আসে। তাদের পরিবার মূলত পারস্য বংশোদ্ভূত। তারা ‘বাহাইয়ান’ সম্প্রদায়ের লোক। ‘বাহাইয়ান’কে সংক্ষেপে ‘বাহাই’ বলা হয়। উপমহাদেশের উচ্চারণে এই ‘বাহাই’ পরবর্তীতে ‘ভাই’ হয়ে যায়। ধনাঢ্য এই পরিবার পুরান ঢাকায় বসবাস শুরু করে। ১৯৬২ সালে আজিজ মোহম্মদ ভাইয়ের জন্ম হয় আরমানিটোলায়।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019