১৯ মে ২০২৪, ০২:২১ পূর্বাহ্ন, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি, রবিবার, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
পটুয়াখালীতে ফোন চাওয়ায় মায়ের বকাঝকা, এসএসসি পাস শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা আগৈলঝাড়ায় শুক্রবার রাতে স্কুল ছাত্রী ও গৃহবধুর আত্মহত্যা বরিশাল নগরী বিভিন্ন পেট্রোল পাম্পে ট্রাফিক পুলিশের সচেতনমূলক অভিযান বাবুগঞ্জে অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জনগনের ভালবাসায় এগিয়ে ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী চায়না খানম ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি চেষ্টা মামলায় কারাগারে মাদরাসা সুপার চাঁদপাশায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফারজানা বিনতে ওহাব এর উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত রিকশাচালককে পিটিয়ে পা ভেঙে দেওয়া সেই পুলিশ সদস্য ক্লোজড বরিশালে স্বামীর জমানো টাকা নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী তেঁতুলিয়া হাসপাতালে অকেজো মালামাল টেন্ডারে ঘাবলা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি
বরিশালে ফেনসিডিল মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা রাজিবকে জেলহাজতে প্রেরণ!

বরিশালে ফেনসিডিল মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা রাজিবকে জেলহাজতে প্রেরণ!

আনলাইন ডেস্ক ॥ ২০১৮ সনের ফেনসিডিল মামলায় দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর আওয়ামী লীগ নেতা শাহরিয়ার সাচিপ রাজিব আজ রোববার আদালতে আত্মসমর্পণ করে। এসময় বিচারক তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। বরিশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন। শাহরিয়ার সাচিপ রাজিব ২১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। চাদাবাজীর অভিযোগে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছিলো বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এ বিষয়ে সদর থানার জিআরও খোকন চন্দ্র দে জানান, ২০১৮ সনের ফেনসিডিল মামলায় সহযোগী এবং আসামি হিসেবে রাজিবের নাম রয়েছে। আদালত থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হলেও দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর গতকাল আদালতে হাজির হলে বিচারক তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, গত বছর বরিশাল মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অভিযান চালিয়ে নগরীর ২১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ২২২ বোতল ফেন্সিডিলসহ মুশফিকুল হাসান মাসুম (৩৮) এবং সবুজ ইসলাম শাহিন (৪০) নামে দুই মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছিলো। এ ঘটনায় আটক দুই জনসহ বরিশালের বহুল আলোচিত সমালোচিত ছাত্রলীগ নেতা মঈন তুষার, নগরীর গোরস্থান রোডের বাসিন্দা যুবলীগ নেতা শাহরিয়ার সাচিপ রাজিব, জিয়া সড়ক এলাকার আদনান আলম বাবু, বিএন খান কলেজের শিক মো. হারুন খান এবং রাজশাহীর আছমত খানের বিরুদ্ধে মামলা দয়ের করেছিলো পুলিশ।

আটকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে মাদক ব্যবসায় জড়িত ভিপি মঈন তুষার ও যুবলীগ নেতা শাহরিয়ার সাচিপ রাজিবসহ বাকি মাদক ব্যবসায়ির পরিচয় পাওয়া গেছে। আলোচিত এই মামলার বাদী গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশিষ পাল বলেছিলেন- মুশফিকুল হাসান মাসুম এবং সবুজ ইসলাম শাহিনকে জিজ্ঞাসাবাদে ভিপি মঈন তুষার ও যুবলীগ নেতা শাহরিয়ার সাচিপ রাজিবসহ বাকিদের নাম প্রকাশ করেছে। যে কারণে তাদেরসহ মোট সাতজনকে অভিযুক্ত করে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019