বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৮:৪৯ অপরাহ্ন

Notice :
প্রকাশ্যে ধূমপান করে তোপের মুখেপড়া এক তরুণীর ভিডিও ভাইরাল।চরমোনাই পীরের ওয়াজ মাহফিল বাতিল।বিএনপির কোনো নেতাকর্মী যেন পদ্মা সেতু পার না হয় বললেন শাজাহান খান।জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, ভাতাপ্রাপ্ত প্রায় দুই হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার বয়স ৫০–এর নিচে।করোনা আক্রান্ত কনের অভিনব পদ্ধতিতে বিয়ে (ভিডিও)আবাসিক হোটেলে জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ।পুলিশে হঠাৎ বড় রদবদল।ইউটিউবে যাত্রা শুরু করছেন মিজানুর রহমান আজহারী।
রাত পোহালেই লালমোহোন পোরসভা নির্বাচন, ভোট গ্রহন ইভিএম পদ্ধতিতে

রাত পোহালেই লালমোহোন পোরসভা নির্বাচন, ভোট গ্রহন ইভিএম পদ্ধতিতে

আনোয়ার পঞ্চায়েত মিলন,ভোলা।। রাত পোহালেই ভোলা জেলার লালমোহন পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রেই ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে ভোট গ্রহন করা হবে।

ইতোমধ্যে ওই এলাকার ভোটারদের ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন ব্যবহার সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত দুই জন মেয়র প্রার্থীসহ ৪৭ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ১৩ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। মোট ১২টি কেন্দ্রের ৫৯ টি কক্ষে ১৯ হাজার এক’শ জন ভোটার তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করবেন।

এদের মধ্যে ৯ হাজার ৭০৩ জন পুরুষ ও ৯ হাজার ৩৯৭ জন নারী ভোটার রয়েছেন। নির্বাচনে সার্বিক আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসারসহ ছয় স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতীহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলবে।

জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলা উদ্দিন আল মামুন জানান, শান্তিপুর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন করতে সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে ৬ জন নির্বাহী মেজিস্ট্রেট ও এক জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাখা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, যেহেতু ভোলায় এই প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ হবে। তাই ভোটারদের ভোট প্রদান পদ্ধতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে। ভোটের দিন প্রত্যেক কেন্দ্রে ২ জন করে ইভিএম অপারেটর রাখা হবে। যাতে কোন সমস্যা দেখা দিলে তাৎক্ষনিক তা সমাধান করা যায়।

ভোলা পুলিশ সুপার সরকার মো. কায়সার বলেন, ভোটারদের নির্বিঘ্নে ভোটাধীকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে পুলিশের পক্ষ থেকে ৩ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এর মধ্যে স্ট্রাইকিং ফোর্স, মোবাইল টিম ও কেন্দ্র ভিত্তিক পুলিশ কাজ করবে। একই সাথে দুই প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের ২টি টিম নিয়মিত টহলে নিয়জিত থাকবে। প্রতিটি কেন্দ্রে ৮ জন আনসার ও ১০জন করে পুলিশ মোতায়ন থাকবে।

তিনটি কেন্দ্রকে পুলিশের পক্ষ থেকে অধিক গুরুত্বপুর্ণ হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছে। এসব কেন্দ্র বাড়তি নজরদারীতে রাখা হবে। সব ধরনের নাশকতা মোকাবেলায় পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান পুলিশ সুপার।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারীতে লালমোহন পৌরসভার মেয়াদ শেষ হলেও মামলা জটিলতার কারণে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। এটি লালমোহন পৌরসভার চতুর্থ নির্বাচন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019
Bengali English