১৯ মে ২০২৪, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি, রবিবার, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
পটুয়াখালীতে ফোন চাওয়ায় মায়ের বকাঝকা, এসএসসি পাস শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা আগৈলঝাড়ায় শুক্রবার রাতে স্কুল ছাত্রী ও গৃহবধুর আত্মহত্যা বরিশাল নগরী বিভিন্ন পেট্রোল পাম্পে ট্রাফিক পুলিশের সচেতনমূলক অভিযান বাবুগঞ্জে অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জনগনের ভালবাসায় এগিয়ে ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী চায়না খানম ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি চেষ্টা মামলায় কারাগারে মাদরাসা সুপার চাঁদপাশায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফারজানা বিনতে ওহাব এর উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত রিকশাচালককে পিটিয়ে পা ভেঙে দেওয়া সেই পুলিশ সদস্য ক্লোজড বরিশালে স্বামীর জমানো টাকা নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী তেঁতুলিয়া হাসপাতালে অকেজো মালামাল টেন্ডারে ঘাবলা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি
বরিশালের গৌরনদীতে অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে কাতার প্রবাসীর মৃত্যু হয়

বরিশালের গৌরনদীতে অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে কাতার প্রবাসীর মৃত্যু হয়

বরিশালে দুর্ঘটনায় কাতার প্রবাসী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বরিশাল গৌরনদীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় অটো রিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লেগে কেয়া আক্তার (২১) নামের কাতার প্রবাসী ওই নারীর মৃত্যু হয়। নিহত নারী উপজেলার বাঘমারা গ্রামের সিদ্দিক বেপারীর কন্যা।

নিহতের চাচি নুরজাহান বেগম জানান, কাতার প্রবাসী কেয়া আক্তার গত দেড় মাস আগে ছুটিতে বাড়িতে আসেন। শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে সাতটার দিকে কেয়া তার খালার বাড়ি বাউরগাতী থেকে অটো রিকশাযোগে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে অটো রিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে তার গলায় ফাঁস লাগে।
স্থানীয়রা মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত আটটার দিকে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক দেওয়ান আব্দুস সালাম তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম সরোয়ার জানান, খবর পেয়ে ওই প্রবাসীর মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়। কিন্তু এ বিষয়ে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019