২০ মে ২০২৪, ০৪:২৫ অপরাহ্ন, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি, সোমবার, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোটিশ
জরুরী ভিত্তিতে কিছুসংখ্যক জেলা-উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে যোগাযোগ- ০১৭১২৫৭৩৯৭৮
সর্বশেষ সংবাদ :
ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা চলবে: প্রধানমন্ত্রী ইরানে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, প্রেসিডেন্ট রাইসির লাশ উদ্ধার বানারীপাড়ায় শিক্ষাই শক্তি সংগঠনের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা সুন্দরগঞ্জে ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ভাটা বন্ধের নির্দেশ নির্বাচন এলে ধর্মের দোহাই দিয়ে ধুমকেতুর মতো যাদের আগমন ঘটে তাদের সর্বত্র বর্জন করুন অভিনেত্রীর মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে স্বামীর আত্মহত্যা চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান সুন্দরগঞ্জে বাধার মুখে মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজ পটুয়াখালীতে ফোন চাওয়ায় মায়ের বকাঝকা, এসএসসি পাস শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা আগৈলঝাড়ায় শুক্রবার রাতে স্কুল ছাত্রী ও গৃহবধুর আত্মহত্যা
বরগুনা সরকারি কলেজের এক ছাত্রীর মাকে রক্ত দেবার কথা বলে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে

বরগুনা সরকারি কলেজের এক ছাত্রীর মাকে রক্ত দেবার কথা বলে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে

বরগুনা সরকারি কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের এক ছাত্রীকে মাকে রক্ত দেয়ার কথা বলে বরিশালে আবাসিক হোটেল কক্ষে একাধিকবার ধর্ষণ করে জসিম নামের এক যুবক। ধর্ষণের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ওই ধর্ষকের বিরুদ্ধে। এ ব্যাপারে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা করেন।

বৃহস্পতিবার ওই ট্রাইব্যুনালের বিচারক ও জেলা জজ হাফিজুর রহমান মামলাটি গ্রহণ করে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে সাত দিনের মধ্যে এজাহার রুজু করার নির্দেশ দিয়েছেন। আসামি হল বরগুনা জেলাধীন পাথরঘাটা উপজেলার বটতলা নাচনাপাড়া গ্রামের জসিম উদ্দিন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ওই ট্রাইব্যুনালে অভিযোগ করেন। তার মেয়ে বরগুনা সরকারি কলেজে ব্যবস্থাপনা বিভাগে লেখাপড়া করে। কলেজে যাওয়া-আসার পথে ওই আসামি জসিমের সঙ্গে পরিচয় হয়ে প্রেমের সম্পর্ক হয়। জসিম তার মেয়েকে বলে তার মা (জসিমের মা) বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। তাকে এখনই রক্ত দিতে হবে। জসিম তার মেয়ের কাছে রক্তের গ্রুপ জানতে চায়। জসিম তার মেয়েকে বলে তোমার এবং আমার মায়ের রক্তের গ্রুপ এক। বরিশাল কোথাও রক্ত পাওয়া যাচ্ছে না। জসিম বাদীর মেয়েকে বলে তার মাকে বাঁচাতে হলে এখনই বরিশাল যেতে হবে। জসিম বাদীর মেয়েকে নিয়ে ২ আগস্ট বরিশাল যায়। জসিম তার মেয়েকে নিয়ে ফ্রেশ হওয়ার জন্য প্রথমে একটি আবাসিক হোটেলে ওঠে। ওই দিন জসিম একাধিকবার ধর্ষণ করে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019